আজ জয় ছাড়া বিকল্প নেই বাংলাদেশের সামনে

ক্রীড়া ডেস্ক:

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচে যে ভুল হয়েছে, ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তার পুনরাবৃত্তি করতে চায় না বাংলাদেশ। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে উইকেটের চরিত্র বুঝতে পারেনি টিম ম্যানেজমেন্ট।

মাঝের ওভারগুলাতে ব্যাটসম্যানদের কাছে গিয়েছিল ভুল বার্তা। ২৪৪ রান করে মাত্র দুই উইকেটে হেরেছিল বাংলাদেশ। টন্টনের উইকেট নিয়েও আছে বিভ্রান্তি। তবে এবার আর কারও কথায় কান দিতে চান না মাশরাফিরা।

ভুল করতে চান না তারা। কাল বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি মুর্তজা বলেন, ‘উইকেট বুঝতে পারাই অনেক ক্ষেত্রে হার-জিত নির্ধারণ করে দেয়। কিন্তু আমরা নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচে সেটা করতে পারিনি।

উইকেট যদি ঠিকমতো বুঝতে পারতাম তাহলে বুঝতাম ২৭০-২৮০ রান জয়ের জন্য যথেষ্ট। উইকেট পর্যবেক্ষণ খুবই প্রয়োজন।’

সেদিন ধারাভাষ্যকারদের কথা শুনে টিম ম্যানেজমেন্টের অনেকে প্রভাবিত হয়েছেন। ব্যাটসম্যানদের মেরে খেলতে বলা হয়। টন্টনের উইকেট নিয়ে মাশরাফি বলেন, ‘এই উইকেটেও একই রকম বিভ্রান্তি আছে।

প্রথমদিকে শুনেছি ঘাস থাকবে। আবার কেউ কেউ বলছেন এটা সবসময়ই ফ্লাট উইকেট। ম্যাচ চলাকালীন উইকেটের চরিত্র পরিবর্তন হয়। ওভালে সব সময় ধরে নিতে হয় তিনশ’, সাড়ে তিনশ’ রান করতে হবে। কিন্তু মিডল অর্ডারে যারা ব্যাট করেন তারা উইকেটের চরিত্র সহজে বুঝতে পারেন।’

এদিকে শ্রীলংকার বিপক্ষে ম্যাচের আগে থেকেই একাদশে পরিবর্তন আনার কথা ভাবছে বাংলাদেশ। শ্রীলংকার বিপক্ষে ম্যাচটি পরিত্যক্ত হওয়ায় সেটা হয়নি।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে একাদশে পরিবর্তন আসছে। মাশরাফি বলেন, ‘মিরাজের ভালো করার সুযোগ আছে। ওদের প্রথম ছয় ব্যাটসম্যানের পাঁচজন বাঁ-হাতি।

ওদের আক্রমণ করতে গেলে অফ-স্পিন অনেক গুরুত্বপূর্ণ। একই সঙ্গে আমরা আরও কাউকে খেলাতে পারি কি না দেখছি।’ সর্বশেষ দুটি দ্বিপাক্ষিক সিরিজে বাংলাদেশের কাছে পাত্তা পায়নি ক্যারিবীয়রা।

কিন্তু বিশ্বকাপ আর দ্বিপাক্ষিক সিরিজ যে এক নয় সেটা বুঝিয়ে দিলেন মাশরাফি। তিনি বলেন, ‘দ্বিপাক্ষিক সিরিজে অনেক বিষয় কাজ করে। কিন্তু এ ধরনের টুর্নামেন্টে একেকদিন একেক দলের বিপক্ষে খেলতে হয়। ফলে একই রকম মানসিক অবস্থা থাকে না। তাই সেভাবেই চিন্তা করতে হবে।’

মাশরাফির বয়স ৩৬ ছুঁই ছুঁই, ক্রিস গেইলের ৩৯। দু’জনেরই বিশ্বকাপ যাত্রা শুরু ২০০৩-এ। ইংল্যান্ডেই যে তাদের শেষ বিশ্বকাপ, আগেই জানিয়ে দিয়েছেন মাশরাফি ও গেইল। বিশ্বকাপের দুই ‘বুড়ো’ আজ টন্টনে একে অপরের প্রতিপক্ষ। সেই লড়াইয়ে কেউ হারতে চাইবেন না।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

shares