ঢাকা ০৮:৪২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চাঁদপুরে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত ২২০জন ॥ ১শিশুসহ ৪ জনের মৃত্যু

  • আপডেট: ০১:৪১:৪২ অপরাহ্ন, বুধবার, ৭ অগাস্ট ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক:

চাঁদপুরে গত ২ মাসে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে জেলার ফরিদগঞ্জ, হাজিগঞ্জ, মতলব উত্তর, দক্ষিন ও চাঁদপুর সদরে ২শ’ ২০জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়েছে বলে হাসপাতাল কর্র্তৃপক্ষ জানিয়েছেন। এদের মধ্যে অনেকেই স্থানীয় ভাবে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ্য হলেও অনেকের অবস্থা মারাত্বক হওয়ায় তাদেরকে ঢাকায় রেফার করা হয় উন্নত চিকিৎসার জন্য। এদের মধ্যে মতলব উত্তর ২ জন, ফরিদগঞ্জে ১জন ও চাঁদপুর সদর উপজেলার ১জনসহ ৪জন বিভিন্ন হাসপাতালে মুত্যু হয়েছে। এরা হচেছ, মতলব উত্তরের শিশু মদিনা আক্তার(৭), ইউনিয়ন পরিষদের নারী সদস্য লাভলী বাশার (৩২), হাজীগঞ্জ উপজেলার মনোয়ারা বেগম (৭৫) ও চাঁদপুর সদর উপজেলার লক্ষীপুর মডেল ইউনিয়নের বহরিয়া গ্রামের মো: ফারুক হোসেন(১৬)। এদিকে চাঁদুপর জেলার হাজীগঞ্জ উপজেলার মনোয়ারা বেগম (৭৫) ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে গতকাল মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান বলে জানিয়েছেন,তার ভাই রফিকুল ইসলাম । এ ছাড়া মতলব উত্তরে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মদিনা আক্তার নামে এক শিশু মঙ্গলবার ভোররাতে রাজধানী ঢাকার ধানমন্ডির বেসরকারি একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। এমন তথ্য নিশ্চিত করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শারমিন আক্তার। তিনি আরো জানান, শিশু মদিনা আক্তার ঘনিয়ারপাড় অক্সফোর্ড কিন্ডারগার্টেনের প্রথম শ্রেণির শিক্ষার্থী। এর আগে গত শনিবার গ্রামের বাড়িতে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হলে শিশুটিকে চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হয়। এখানে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে রাজধানীর ধানমন্ডি জেনারেল অ্যান্ড কিডনি হাসপাতালে নিয়ে যান স্বজনরা।
শিশু মদিনা আক্তারের মা ময়না আক্তার জানান, মদিনা কোথাও বেড়াতে যায়নি। গ্রামের বাড়িতেই সে জ্বরে আক্রান্ত হয়। দুই ভাই-বোনের মধ্যে মদিনা বড়। তার বাবা মিজানুর রহমান মধ্যপ্রাচ্যে থাকেন।
অপর দিকে চাঁদপুর শহরের ক্যাফে জামান হোটেলের রুটি তৈরীর কারিঘর মো: ফারুক হোসেন চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার রাতে ঢাকা মেডিকেলে মারা যায় বলে তার চাচা সৈয়দ আহম্মেদ গাজী জানান। কারিঘর ফারুক গত কয়েকদিন পূর্বে চাঁদপুরে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে চাঁদপুর সদর হাপাতালে ভর্তি করা হয়। এখানে তার অবস্থার অবনতি হলে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তিকৃত থাকা অবস্থায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়। সে বহরিয়া এলাকার নূর আলমের ছেলে। এর পূর্বে মতলব উত্তরে ডেঙ্গু জ¦রে নারী ইউপি সদস্য মৃত্যুবরণ করছেন। গত রোববার রাতে ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান । নিহত নারী ইউপি সদস্য চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণ উপজেলার খাদেরগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের নারী সদস্য লাভলী বাশার (৩২)। তিনি উপজেলার ৩নং খাদেরগাঁও ইউপির সংরক্ষিত ৪, ৫ ও ৬ নম্বর ওয়ার্ডের নির্বাচিত সদস্য। নিহত লাভলী বাবার বাড়ি উপজেলার নাগদা এলাকায়। তিনি স্থানীয় একটি মাদরাসার শিক্ষক আবুল বাশারের স্ত্রী। পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত চার-পাঁচদিন আগে ঢাকায় একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে যান লাভলী। সেখান থেকে গত বুধবার বাড়ি ফিরে আসেন। গত বৃহস্পতিবার দুপুর ১টায় জ্বরে আক্রান্ত হন। ওইদিন বিকেল ৩টায় চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হয়ে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হন। সেখানে চিকিৎসা নেওয়ার পরও অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় পরিবারের লোকজন তাকে শনিবার বিকেলে ঢাকার বেসরকারি শমরিতা হাসপাতালে ভর্তি করেন। রোববার রাতে সেখানকার নিবিড় পরিচর্যা বিভাগে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

এদিকে, মতলব উত্তরে ডেঙ্গুর চিকিৎসা নিতে হাসপাতালে চাপ বাড়ছে। বুধবার দুপুর ১২টা পর্যন্ত চাঁদপুর সরকারী জেনারেল হাসপাতালে মোট ৮২ জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় ২৯ জন নতুন রোগী ভর্তি হয়েছেন। চিকিৎসা নেওয়া ৮২ জন রোগীর মধ্যে পুরুষ ৪২ জন, নারী ২৯ জন এবং ১১টি শিশু।
চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. আনোয়ারুল আজিম জানান, গত দুই সপ্তাহে ২০০ জনের বেশি ডেঙ্গু রোগী এ হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা নিয়েছেন। এদের মধ্যে ১৫০ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন। অন্য ১০ জনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, চাঁদপুরে এ পর্যন্ত যতজন ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন, তারা প্রায় সবাই রাজধানী ঢাকা থেকে এই রোগের জীবাণু নিয়ে গ্রামের বাড়িতে ফিরেছেন। এ কর্মকর্তা আরো জানান, ডেঙ্গু জ¦র স্বাভাবিক থাকলে আমাদের এখানে চিকিৎসা প্রদান করা হয়। যেগুলো মারাত্মক আকার ধারন করে তাদেরকে ঢাকায় রেফার করা হয়ে থাকে।

Tag :
সর্বাধিক পঠিত

চাঁদপুরে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত ২২০জন ॥ ১শিশুসহ ৪ জনের মৃত্যু

আপডেট: ০১:৪১:৪২ অপরাহ্ন, বুধবার, ৭ অগাস্ট ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক:

চাঁদপুরে গত ২ মাসে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে জেলার ফরিদগঞ্জ, হাজিগঞ্জ, মতলব উত্তর, দক্ষিন ও চাঁদপুর সদরে ২শ’ ২০জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়েছে বলে হাসপাতাল কর্র্তৃপক্ষ জানিয়েছেন। এদের মধ্যে অনেকেই স্থানীয় ভাবে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ্য হলেও অনেকের অবস্থা মারাত্বক হওয়ায় তাদেরকে ঢাকায় রেফার করা হয় উন্নত চিকিৎসার জন্য। এদের মধ্যে মতলব উত্তর ২ জন, ফরিদগঞ্জে ১জন ও চাঁদপুর সদর উপজেলার ১জনসহ ৪জন বিভিন্ন হাসপাতালে মুত্যু হয়েছে। এরা হচেছ, মতলব উত্তরের শিশু মদিনা আক্তার(৭), ইউনিয়ন পরিষদের নারী সদস্য লাভলী বাশার (৩২), হাজীগঞ্জ উপজেলার মনোয়ারা বেগম (৭৫) ও চাঁদপুর সদর উপজেলার লক্ষীপুর মডেল ইউনিয়নের বহরিয়া গ্রামের মো: ফারুক হোসেন(১৬)। এদিকে চাঁদুপর জেলার হাজীগঞ্জ উপজেলার মনোয়ারা বেগম (৭৫) ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে গতকাল মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান বলে জানিয়েছেন,তার ভাই রফিকুল ইসলাম । এ ছাড়া মতলব উত্তরে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মদিনা আক্তার নামে এক শিশু মঙ্গলবার ভোররাতে রাজধানী ঢাকার ধানমন্ডির বেসরকারি একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। এমন তথ্য নিশ্চিত করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শারমিন আক্তার। তিনি আরো জানান, শিশু মদিনা আক্তার ঘনিয়ারপাড় অক্সফোর্ড কিন্ডারগার্টেনের প্রথম শ্রেণির শিক্ষার্থী। এর আগে গত শনিবার গ্রামের বাড়িতে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হলে শিশুটিকে চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হয়। এখানে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে রাজধানীর ধানমন্ডি জেনারেল অ্যান্ড কিডনি হাসপাতালে নিয়ে যান স্বজনরা।
শিশু মদিনা আক্তারের মা ময়না আক্তার জানান, মদিনা কোথাও বেড়াতে যায়নি। গ্রামের বাড়িতেই সে জ্বরে আক্রান্ত হয়। দুই ভাই-বোনের মধ্যে মদিনা বড়। তার বাবা মিজানুর রহমান মধ্যপ্রাচ্যে থাকেন।
অপর দিকে চাঁদপুর শহরের ক্যাফে জামান হোটেলের রুটি তৈরীর কারিঘর মো: ফারুক হোসেন চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার রাতে ঢাকা মেডিকেলে মারা যায় বলে তার চাচা সৈয়দ আহম্মেদ গাজী জানান। কারিঘর ফারুক গত কয়েকদিন পূর্বে চাঁদপুরে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে চাঁদপুর সদর হাপাতালে ভর্তি করা হয়। এখানে তার অবস্থার অবনতি হলে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তিকৃত থাকা অবস্থায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়। সে বহরিয়া এলাকার নূর আলমের ছেলে। এর পূর্বে মতলব উত্তরে ডেঙ্গু জ¦রে নারী ইউপি সদস্য মৃত্যুবরণ করছেন। গত রোববার রাতে ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান । নিহত নারী ইউপি সদস্য চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণ উপজেলার খাদেরগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের নারী সদস্য লাভলী বাশার (৩২)। তিনি উপজেলার ৩নং খাদেরগাঁও ইউপির সংরক্ষিত ৪, ৫ ও ৬ নম্বর ওয়ার্ডের নির্বাচিত সদস্য। নিহত লাভলী বাবার বাড়ি উপজেলার নাগদা এলাকায়। তিনি স্থানীয় একটি মাদরাসার শিক্ষক আবুল বাশারের স্ত্রী। পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত চার-পাঁচদিন আগে ঢাকায় একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে যান লাভলী। সেখান থেকে গত বুধবার বাড়ি ফিরে আসেন। গত বৃহস্পতিবার দুপুর ১টায় জ্বরে আক্রান্ত হন। ওইদিন বিকেল ৩টায় চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হয়ে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হন। সেখানে চিকিৎসা নেওয়ার পরও অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় পরিবারের লোকজন তাকে শনিবার বিকেলে ঢাকার বেসরকারি শমরিতা হাসপাতালে ভর্তি করেন। রোববার রাতে সেখানকার নিবিড় পরিচর্যা বিভাগে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

এদিকে, মতলব উত্তরে ডেঙ্গুর চিকিৎসা নিতে হাসপাতালে চাপ বাড়ছে। বুধবার দুপুর ১২টা পর্যন্ত চাঁদপুর সরকারী জেনারেল হাসপাতালে মোট ৮২ জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় ২৯ জন নতুন রোগী ভর্তি হয়েছেন। চিকিৎসা নেওয়া ৮২ জন রোগীর মধ্যে পুরুষ ৪২ জন, নারী ২৯ জন এবং ১১টি শিশু।
চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. আনোয়ারুল আজিম জানান, গত দুই সপ্তাহে ২০০ জনের বেশি ডেঙ্গু রোগী এ হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা নিয়েছেন। এদের মধ্যে ১৫০ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন। অন্য ১০ জনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, চাঁদপুরে এ পর্যন্ত যতজন ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন, তারা প্রায় সবাই রাজধানী ঢাকা থেকে এই রোগের জীবাণু নিয়ে গ্রামের বাড়িতে ফিরেছেন। এ কর্মকর্তা আরো জানান, ডেঙ্গু জ¦র স্বাভাবিক থাকলে আমাদের এখানে চিকিৎসা প্রদান করা হয়। যেগুলো মারাত্মক আকার ধারন করে তাদেরকে ঢাকায় রেফার করা হয়ে থাকে।