ঢাকা ০৭:২৭ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

‘বাবা তুমি ভালো কাজ করলে তোমাকে বদলি করা হলো কেন?’

  • আপডেট: ০৫:৩৪:৪৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৪ জুন ২০১৯

সুজন দাস :

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের উপপরিচালক মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ারের বদলি আদেশ এখন টক অব দ্য কান্ট্রি। ফেসবুকে ভাইরাল বদলি আদেশের প্রজ্ঞাপন। সবার জিজ্ঞাসা কেন বদলি করা হলো? এই কর্মকর্তার ছোট্ট মেয়েও তাকে একই প্রশ্ন করেছিলেন।

এই প্রসঙ্গে মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার বলেন, ‘‘আমার ছোট্ট মেয়ে আমাকে প্রশ্ন করেছিল, ‘বাবা তুমি ভালো কাজ করলে তোমাকে বদলি করা হলো কেন?’ আমি তার উত্তর দিতে পারিনি। এটাই আমার ব্যর্থতা। তাকে উত্তর দেওয়ার জবাব আমার জানা নেই। আমি প্রজাতন্ত্রের কর্মচারী যেখানেই বদলি করা হবে, সেখানেই কাজ করতে হবে।’’

সোমবার (৩ জুন) দুপুরে আড়ংকে জরিমানা করেন তিনি। আর রাতেই তার বদলির আদেশ জারি হয়।

মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার বলেন, ‘আমি যেখানেই যে অবস্থায় থাকি, ন্যায়ের পক্ষে কাজ করে যাবো। এর আগে দেশের বিভিন্ন জেলায় কাজ করেছি, সেসব এলাকায় ন্যায় ও সুনামের সঙ্গে কাজ করেছি। সেইসব জেলার মানুষ এখনও আমাকে ফোন করে, মনে রেখেছে। তবে ঈদের আগে আমার পরিবারের জন্য এই বদলির আদেশটি বিব্রত ও সুখের সংবাদ না।’

সোমবার দিবাগত রাতে মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার বলেন, ‘আমি আজকে সারাদিনই ব্যস্ত ছিলাম। উত্তরা ও গুলশান এলাকায় অভিযানে ছিলাম। সেখান থেকে এসে অফিসে কাজ করেছি। ইফতার করেছি বাইরে। এরপর বেসরকারি টেলিভিশন ইন্ডিপেন্ডেন্ট টিভির একটি আলোচনায় অংশ নিয়েছি। সেখান থেকে বের হয়ে রাতে ফের আরটিভির আলোচনায় অংশ নিতে বের হই। রাত আনুমানিক সাড়ে ১১টার দিকে আমার ভাই ফোন দিয়ে আমাকে জানায়, আমার বদলি হয়েছে। আমি আলোচনার বিরতিতে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে গিয়ে বদলির আদেশটি দেখতে পাই। এরপর আরটিভি থেকে বাসায় চলে আসি।’

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরে কর্মরত এই কর্মকর্তা বলেন, ‘বদলি আমাদের নিয়মিত প্রক্রিয়া। এটা হতেই পারে। আমি এর আগেও বিভিন্ন জায়গায় কাজ করেছি। এখানে আসার আগে মানিকগঞ্জ জেলা প্রশাসক ও সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক হিসেবে কর্মরত ছিলাম। সুনামগঞ্জে দায়িত্ব পালনের পর যখন আমার বদলি হলো, সেখানের মানুষ আমার জন্য কান্নাকাটি করেছে। তারা মানববন্ধন করেছে। এখনও ফোন দেয়। মানুষ আমার কাজকে পছন্দ করে। মানুষের জন্য কাজ যেকোনও জায়গায় বসেই করা যায়। তবে ঈদের আগে এই বদলিটি আমার পরিবারের জন্য সুখবর নয়।’

সোমবার দুপুরে উত্তরার জসিমউদ্দিন রোডের আড়ংয়ের একটি আউটলেটকে একই পাঞ্জাবির দাম পাঁচ দিনের ব্যবধানে দ্বিগুন রাখায় সাড়ে চার লাখ টাকা জরিমানা করেন তিনি। পাশাপাশি আউটলেটটি ২৪ ঘণ্টার জন্য বন্ধ ঘোষণা করেন। এই ঘটনার কয়েক ঘণ্টা পর তার বদলির আদেশ দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। তাকে খুলনায় বদলি করা হয়েছে। আগামী ১৩ জুনের মধ্যে তাকে নতুন কর্মস্থলে যোগদানের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সোমবার সন্ধ্যায় জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের ওয়েব সাইটে বদলির আদেশটির প্রজ্ঞাপন প্রকাশ করা হয়।

জনপ্রশাসান মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মুহাম্মদ আব্দুল লতিফ স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী, মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ারের নতুন কর্মস্থল সড়ক ও জনপদ অধিদফতর খুলনা জোন। তাকে এস্টেট ও আইন কর্মকর্তা হিসেবে বদলি করা হলো।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, আগামী ১৩ জুনের মধ্যে এই কর্মকর্তাকে তার বদলি কর্মস্থলে যোগদান করতে হবে, অন্যথায় ১৩ জুন দুপুরে তার বর্তমান কর্মস্থল হতে তাৎক্ষণিকভাবে অবমুক্ত (স্ট্যান্ড রিলিজ) মর্মে গণ্য হবেন। বাজার তদারকিতে মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ারগত ৩০ মে আমদানি তথ্যবিহীন ও মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য ব্যবহার করায় রাজধানীর ধানমন্ডির পারসোনা ও ফারজানা শাকিলস মেকওভার সেলুনে অভিযান চালিয়ে জরিমানা করেন তিনি।-বাংলা ট্রিবিউন

Tag :
সর্বাধিক পঠিত

গরু-ছাগলে ভরে গেছে হাট, তবে নেই ক্রেতা

‘বাবা তুমি ভালো কাজ করলে তোমাকে বদলি করা হলো কেন?’

আপডেট: ০৫:৩৪:৪৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৪ জুন ২০১৯

সুজন দাস :

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের উপপরিচালক মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ারের বদলি আদেশ এখন টক অব দ্য কান্ট্রি। ফেসবুকে ভাইরাল বদলি আদেশের প্রজ্ঞাপন। সবার জিজ্ঞাসা কেন বদলি করা হলো? এই কর্মকর্তার ছোট্ট মেয়েও তাকে একই প্রশ্ন করেছিলেন।

এই প্রসঙ্গে মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার বলেন, ‘‘আমার ছোট্ট মেয়ে আমাকে প্রশ্ন করেছিল, ‘বাবা তুমি ভালো কাজ করলে তোমাকে বদলি করা হলো কেন?’ আমি তার উত্তর দিতে পারিনি। এটাই আমার ব্যর্থতা। তাকে উত্তর দেওয়ার জবাব আমার জানা নেই। আমি প্রজাতন্ত্রের কর্মচারী যেখানেই বদলি করা হবে, সেখানেই কাজ করতে হবে।’’

সোমবার (৩ জুন) দুপুরে আড়ংকে জরিমানা করেন তিনি। আর রাতেই তার বদলির আদেশ জারি হয়।

মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার বলেন, ‘আমি যেখানেই যে অবস্থায় থাকি, ন্যায়ের পক্ষে কাজ করে যাবো। এর আগে দেশের বিভিন্ন জেলায় কাজ করেছি, সেসব এলাকায় ন্যায় ও সুনামের সঙ্গে কাজ করেছি। সেইসব জেলার মানুষ এখনও আমাকে ফোন করে, মনে রেখেছে। তবে ঈদের আগে আমার পরিবারের জন্য এই বদলির আদেশটি বিব্রত ও সুখের সংবাদ না।’

সোমবার দিবাগত রাতে মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার বলেন, ‘আমি আজকে সারাদিনই ব্যস্ত ছিলাম। উত্তরা ও গুলশান এলাকায় অভিযানে ছিলাম। সেখান থেকে এসে অফিসে কাজ করেছি। ইফতার করেছি বাইরে। এরপর বেসরকারি টেলিভিশন ইন্ডিপেন্ডেন্ট টিভির একটি আলোচনায় অংশ নিয়েছি। সেখান থেকে বের হয়ে রাতে ফের আরটিভির আলোচনায় অংশ নিতে বের হই। রাত আনুমানিক সাড়ে ১১টার দিকে আমার ভাই ফোন দিয়ে আমাকে জানায়, আমার বদলি হয়েছে। আমি আলোচনার বিরতিতে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে গিয়ে বদলির আদেশটি দেখতে পাই। এরপর আরটিভি থেকে বাসায় চলে আসি।’

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরে কর্মরত এই কর্মকর্তা বলেন, ‘বদলি আমাদের নিয়মিত প্রক্রিয়া। এটা হতেই পারে। আমি এর আগেও বিভিন্ন জায়গায় কাজ করেছি। এখানে আসার আগে মানিকগঞ্জ জেলা প্রশাসক ও সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক হিসেবে কর্মরত ছিলাম। সুনামগঞ্জে দায়িত্ব পালনের পর যখন আমার বদলি হলো, সেখানের মানুষ আমার জন্য কান্নাকাটি করেছে। তারা মানববন্ধন করেছে। এখনও ফোন দেয়। মানুষ আমার কাজকে পছন্দ করে। মানুষের জন্য কাজ যেকোনও জায়গায় বসেই করা যায়। তবে ঈদের আগে এই বদলিটি আমার পরিবারের জন্য সুখবর নয়।’

সোমবার দুপুরে উত্তরার জসিমউদ্দিন রোডের আড়ংয়ের একটি আউটলেটকে একই পাঞ্জাবির দাম পাঁচ দিনের ব্যবধানে দ্বিগুন রাখায় সাড়ে চার লাখ টাকা জরিমানা করেন তিনি। পাশাপাশি আউটলেটটি ২৪ ঘণ্টার জন্য বন্ধ ঘোষণা করেন। এই ঘটনার কয়েক ঘণ্টা পর তার বদলির আদেশ দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। তাকে খুলনায় বদলি করা হয়েছে। আগামী ১৩ জুনের মধ্যে তাকে নতুন কর্মস্থলে যোগদানের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সোমবার সন্ধ্যায় জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের ওয়েব সাইটে বদলির আদেশটির প্রজ্ঞাপন প্রকাশ করা হয়।

জনপ্রশাসান মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মুহাম্মদ আব্দুল লতিফ স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী, মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ারের নতুন কর্মস্থল সড়ক ও জনপদ অধিদফতর খুলনা জোন। তাকে এস্টেট ও আইন কর্মকর্তা হিসেবে বদলি করা হলো।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, আগামী ১৩ জুনের মধ্যে এই কর্মকর্তাকে তার বদলি কর্মস্থলে যোগদান করতে হবে, অন্যথায় ১৩ জুন দুপুরে তার বর্তমান কর্মস্থল হতে তাৎক্ষণিকভাবে অবমুক্ত (স্ট্যান্ড রিলিজ) মর্মে গণ্য হবেন। বাজার তদারকিতে মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ারগত ৩০ মে আমদানি তথ্যবিহীন ও মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য ব্যবহার করায় রাজধানীর ধানমন্ডির পারসোনা ও ফারজানা শাকিলস মেকওভার সেলুনে অভিযান চালিয়ে জরিমানা করেন তিনি।-বাংলা ট্রিবিউন