ঢাকা ০৭:০২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফরিদগঞ্জে  হিটস্ট্রকে ২জনের মৃত্যু

  • আপডেট: ০১:০৫:২০ অপরাহ্ন, সোমবার, ১০ জুন ২০১৯
  • ১১

ফরিদগঞ্জ প্রতিনিধি :
চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে ২৪ ঘন্টায় মাথা ঘুরে পড়ে গিয়ে দুই জনের মৃত্যু হয়েছে। এদর একজন অবসর প্রাপ্ত শিক্ষক খলিলুর রহমান(৭১) এবং অপরজন সিএনজি অটোরিক্সা চালক সামছুল মিজি(২২)। প্রথম ঘটনাটি রোববার বিকালে ফরিদগঞ্জ বাসষ্ট্যান্ডে এবং দ্বিতীয় ঘটনাটি সোমবার দুপুরে ফরিদগঞ্জ উপজেলা সদরস্থ সিটি মার্কেটের সামনে ঘটে। ধারনা করা হচ্ছে তারা হিটস্ট্রকে মৃত্যুবরণ করেছে।
জানা গেছে, উপজেলার উভারামপুরে গ্রামের অবসর প্রাপ্ত শিক্ষক খলিলুর রহমান সোমবার সকালে পেনশনের টাকা তুলতে ফরিদগঞ্জে আসেন। সকালে উপজেলা হিসাব বিভাগ পেনশনের জন্য দীর্ঘ লাইনে দাঁড়ান । পরে সোনালী ব্যাংকে এসেও লাইনে দাড়িয়ে থাকেন। দীর্ঘ সময়ে লাইনে দাড়িয়ে থাকা ও তীব্র গরমের কারণে অসুস্থ হয়ে পড়েন। এরই এক পর্যায়ে ব্যাংক থেকে বেরিয়ে সিটি মার্কেটের সামনে আসলে মাথা ঘুরে তিনি রাস্তায় পড়ে যান। দ্রুত আশপাশের লোকজন এসে তাকে চিকিৎসকের কাছে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।
খলিলুর রহমানের ছেলে নজরুল ইসলাম জানান, তার বাবা সোমবার সকাল ৬টায় পেনশনের জন্য ফরিদগঞ্জে আসেন। তিনি এসময় পেনশনের টাকা মোবাইল ব্যাংকিংয়ের এর মাধ্যমে প্রদানের দাবী জানান।
এদিকে উপজেলার গোবিন্দপুর উত্তর ইউনিয়নের ধানুয়া গ্রামের আ: সাত্তার মিজির ছেলে সিএনজি অটোরিক্সা চালক সামছুল মিজি (২২) রোববার বিকালে ফরিদগঞ্জ বাসষ্ট্যান্ডে গাড়ী নিয়ে যাত্রীর অপেক্ষার সময়ে মাথা ঘুরে পড়ে যায়। তাৎক্ষনিক লোকজন তাকে চিকিৎসকের কাছে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করে।

Tag :
সর্বাধিক পঠিত

ফরিদগঞ্জে  হিটস্ট্রকে ২জনের মৃত্যু

আপডেট: ০১:০৫:২০ অপরাহ্ন, সোমবার, ১০ জুন ২০১৯

ফরিদগঞ্জ প্রতিনিধি :
চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে ২৪ ঘন্টায় মাথা ঘুরে পড়ে গিয়ে দুই জনের মৃত্যু হয়েছে। এদর একজন অবসর প্রাপ্ত শিক্ষক খলিলুর রহমান(৭১) এবং অপরজন সিএনজি অটোরিক্সা চালক সামছুল মিজি(২২)। প্রথম ঘটনাটি রোববার বিকালে ফরিদগঞ্জ বাসষ্ট্যান্ডে এবং দ্বিতীয় ঘটনাটি সোমবার দুপুরে ফরিদগঞ্জ উপজেলা সদরস্থ সিটি মার্কেটের সামনে ঘটে। ধারনা করা হচ্ছে তারা হিটস্ট্রকে মৃত্যুবরণ করেছে।
জানা গেছে, উপজেলার উভারামপুরে গ্রামের অবসর প্রাপ্ত শিক্ষক খলিলুর রহমান সোমবার সকালে পেনশনের টাকা তুলতে ফরিদগঞ্জে আসেন। সকালে উপজেলা হিসাব বিভাগ পেনশনের জন্য দীর্ঘ লাইনে দাঁড়ান । পরে সোনালী ব্যাংকে এসেও লাইনে দাড়িয়ে থাকেন। দীর্ঘ সময়ে লাইনে দাড়িয়ে থাকা ও তীব্র গরমের কারণে অসুস্থ হয়ে পড়েন। এরই এক পর্যায়ে ব্যাংক থেকে বেরিয়ে সিটি মার্কেটের সামনে আসলে মাথা ঘুরে তিনি রাস্তায় পড়ে যান। দ্রুত আশপাশের লোকজন এসে তাকে চিকিৎসকের কাছে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।
খলিলুর রহমানের ছেলে নজরুল ইসলাম জানান, তার বাবা সোমবার সকাল ৬টায় পেনশনের জন্য ফরিদগঞ্জে আসেন। তিনি এসময় পেনশনের টাকা মোবাইল ব্যাংকিংয়ের এর মাধ্যমে প্রদানের দাবী জানান।
এদিকে উপজেলার গোবিন্দপুর উত্তর ইউনিয়নের ধানুয়া গ্রামের আ: সাত্তার মিজির ছেলে সিএনজি অটোরিক্সা চালক সামছুল মিজি (২২) রোববার বিকালে ফরিদগঞ্জ বাসষ্ট্যান্ডে গাড়ী নিয়ে যাত্রীর অপেক্ষার সময়ে মাথা ঘুরে পড়ে যায়। তাৎক্ষনিক লোকজন তাকে চিকিৎসকের কাছে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করে।