ঢাকা ০৩:০০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভূমি উন্নয়ন কর পরিশোধ করা সকলের নিজ নিজ দায়িত্ব : অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ জামাল হোসেন

  • আপডেট: ০১:২২:৫৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০১৯
  • ১৯

মনিরুল ইসলাম মনির :
উপজেলা পর্যায়ে রাজস্ব প্রশাসনের কার্যক্রম আরো ত্বরাণিত্ব করার লক্ষ্যে ২০১৮ হতে ভূমি সেবা সংবর্ধনা মতলব উত্তর উপজেলায় পালন করা হয়। ভূমি সেবা সংবর্ধনার কারণে সেবা গ্রহিতা ও প্রজাগণের মধ্যে যেমন ভূমি উন্নয়ন কর দেয়ার ক্ষেত্রে উৎসাহ বাড়ে তেমনি রাজস্ব প্রশাসনের মাঠ পর্যায়ের সকল কর্মচারীর মধ্যে কাজের আগ্রহ এবং উৎসাহ বাড়ে। সেই লক্ষ্যে চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলা ভূমি অফিসের আয়োজনে উপজেলা রাজস্ব সম্মেলন উপলক্ষ্যে ভূমি সেবা সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলা কনফারেন্স হলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তারের সভাপতিত্বে ও সার্ভেয়ার মো. বাকিরুল ইসলামের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন- চাঁদপুর জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ জামাল হোসেন।
বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- সহকারী কমিশনার (ভূমি) শুভাশিষ ঘোষ। বক্তব্য রাখেন- সাংবাদিক শামসুজ্জামান ডলার, জাকির হোসেন বাদশা।
উপজেলার সর্বোচ্চ ভূমি উন্নয়ন করদাতা মো. শহীদ উল্লাহ, সর্বোচ্চ ভূমি উন্নয়ন কর আদায়কারী ছেংগারচর পৌর ভূমি সহকারী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) মো. শাহজালাল পাঠান, ২য় সর্বোচ্চ ভূমি উন্নয়ন কর আদায়কারী ফরাজীকান্দি ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) মো. কামরুজ্জামান ও ভূমি উপ-সহাকি কর্মকর্তা নুরুল আমিন চৌধুরী, প্রথম শতভাগ ভূমি উন্নয়ন কর আদায়কারী কলাকান্দা ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) মো. শাহ আলম এবং শ্রেষ্ঠ ইউনিয়ন ভূমি সহকারি/উপ-সহকারি কর্মকর্তা দূর্গাপুর ভূমি অফিসের ভূমি সহকারি কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) হুমায়ুন কবীর’কে সংবর্ধনা স্মারক প্রদান করা হয়।
অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ জামাল হোসেন বলেন, বর্তমান সরকার ভূমি ব্যবস্থার আধুনিকায়ন ও ডিজিটালাইজেশনে অনেক দূর অগ্রসর হয়েছে। ভূমি রেজিষ্ট্রেশন হতে শুরু করে অনেক ক্ষেত্রে লাগিয়েছে আধুনিকতার ছোঁয়া। ভূমি রেকর্ড আধুনিক পদ্ধতিতে সংরক্ষণসহ ভূমি সম্পর্কিত সেবা সহজীকরণে আমাদের বিভিন্ন ভূমি অফিস নিজস্ব ওয়েবসাইটও তৈরি করেছে। ই-নামজারির ফলে গ্রাহক হয়রানী অনেকাংশে লাগব হবে। ভূমি উন্নয়ন কর পরিশোধ করা সকলের নিজ নিজ দায়িত্ব। এ ক্ষেত্রে সবাইকে সঠিক সময়ে ভূমি উন্নয়ন কর পরিশোধ করার আহ্বান জানান তিনি। পুরস্কার পাওয়ার কারণের কাজের প্রতি আরো দায়িত্ব বেড়ে যায়।
তিনি আরো বলেন, ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তারা ভূমি উন্নয়ন কর উত্তোলনের জন্য সচেষ্ট হতে হবে। সরকারের পাওনা সঠিক ভাবে বুঝে নেয়াও কর্মকর্তাদের দায়িত্ব।
অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ জামাল হোসেন বলেন, জমির নামজারি করতে আসা গ্রাহকদের সঠিক পরামর্শ দিয়ে হয়রানিমুক্ত সেবা দিতে হবে। কাহারো বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ প্রমানিত হলে কঠিন শান্তি প্রদান করা হবে।
এরপূর্বে উপজেলা ভূমি অফিসের ফটক উদ্বোধন করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ জামাল হোসেন। দেশের সমৃদ্ধি কামনা বিশেষ মুনাজাত করা হয়।

Tag :
সর্বাধিক পঠিত

ধর্ষণের মামলায় মাওলানা নাছির পাটোয়ারীকে আটক করলো র‌্যাব

ভূমি উন্নয়ন কর পরিশোধ করা সকলের নিজ নিজ দায়িত্ব : অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ জামাল হোসেন

আপডেট: ০১:২২:৫৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০১৯

মনিরুল ইসলাম মনির :
উপজেলা পর্যায়ে রাজস্ব প্রশাসনের কার্যক্রম আরো ত্বরাণিত্ব করার লক্ষ্যে ২০১৮ হতে ভূমি সেবা সংবর্ধনা মতলব উত্তর উপজেলায় পালন করা হয়। ভূমি সেবা সংবর্ধনার কারণে সেবা গ্রহিতা ও প্রজাগণের মধ্যে যেমন ভূমি উন্নয়ন কর দেয়ার ক্ষেত্রে উৎসাহ বাড়ে তেমনি রাজস্ব প্রশাসনের মাঠ পর্যায়ের সকল কর্মচারীর মধ্যে কাজের আগ্রহ এবং উৎসাহ বাড়ে। সেই লক্ষ্যে চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলা ভূমি অফিসের আয়োজনে উপজেলা রাজস্ব সম্মেলন উপলক্ষ্যে ভূমি সেবা সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলা কনফারেন্স হলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তারের সভাপতিত্বে ও সার্ভেয়ার মো. বাকিরুল ইসলামের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন- চাঁদপুর জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ জামাল হোসেন।
বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- সহকারী কমিশনার (ভূমি) শুভাশিষ ঘোষ। বক্তব্য রাখেন- সাংবাদিক শামসুজ্জামান ডলার, জাকির হোসেন বাদশা।
উপজেলার সর্বোচ্চ ভূমি উন্নয়ন করদাতা মো. শহীদ উল্লাহ, সর্বোচ্চ ভূমি উন্নয়ন কর আদায়কারী ছেংগারচর পৌর ভূমি সহকারী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) মো. শাহজালাল পাঠান, ২য় সর্বোচ্চ ভূমি উন্নয়ন কর আদায়কারী ফরাজীকান্দি ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) মো. কামরুজ্জামান ও ভূমি উপ-সহাকি কর্মকর্তা নুরুল আমিন চৌধুরী, প্রথম শতভাগ ভূমি উন্নয়ন কর আদায়কারী কলাকান্দা ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) মো. শাহ আলম এবং শ্রেষ্ঠ ইউনিয়ন ভূমি সহকারি/উপ-সহকারি কর্মকর্তা দূর্গাপুর ভূমি অফিসের ভূমি সহকারি কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) হুমায়ুন কবীর’কে সংবর্ধনা স্মারক প্রদান করা হয়।
অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ জামাল হোসেন বলেন, বর্তমান সরকার ভূমি ব্যবস্থার আধুনিকায়ন ও ডিজিটালাইজেশনে অনেক দূর অগ্রসর হয়েছে। ভূমি রেজিষ্ট্রেশন হতে শুরু করে অনেক ক্ষেত্রে লাগিয়েছে আধুনিকতার ছোঁয়া। ভূমি রেকর্ড আধুনিক পদ্ধতিতে সংরক্ষণসহ ভূমি সম্পর্কিত সেবা সহজীকরণে আমাদের বিভিন্ন ভূমি অফিস নিজস্ব ওয়েবসাইটও তৈরি করেছে। ই-নামজারির ফলে গ্রাহক হয়রানী অনেকাংশে লাগব হবে। ভূমি উন্নয়ন কর পরিশোধ করা সকলের নিজ নিজ দায়িত্ব। এ ক্ষেত্রে সবাইকে সঠিক সময়ে ভূমি উন্নয়ন কর পরিশোধ করার আহ্বান জানান তিনি। পুরস্কার পাওয়ার কারণের কাজের প্রতি আরো দায়িত্ব বেড়ে যায়।
তিনি আরো বলেন, ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তারা ভূমি উন্নয়ন কর উত্তোলনের জন্য সচেষ্ট হতে হবে। সরকারের পাওনা সঠিক ভাবে বুঝে নেয়াও কর্মকর্তাদের দায়িত্ব।
অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ জামাল হোসেন বলেন, জমির নামজারি করতে আসা গ্রাহকদের সঠিক পরামর্শ দিয়ে হয়রানিমুক্ত সেবা দিতে হবে। কাহারো বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ প্রমানিত হলে কঠিন শান্তি প্রদান করা হবে।
এরপূর্বে উপজেলা ভূমি অফিসের ফটক উদ্বোধন করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ জামাল হোসেন। দেশের সমৃদ্ধি কামনা বিশেষ মুনাজাত করা হয়।