• ঢাকা
  • সোমবার, ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ২৭ আগস্ট, ২০২২
সর্বশেষ আপডেট : ২৭ আগস্ট, ২০২২

ফরক্কাবাদ ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষকের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা

অনলাইন ডেস্ক
[sharethis-inline-buttons]
ফাইল ছবি।

স্টাফ রিপোর্টার: চাঁদপুর সদর উপজেলার ফরক্কাবাদ ডিগ্রি কলেজের পরিচালনা পর্ষদের কোন ধরণের কমিটি নির্বাচন ছাড়া গঠন না করার জন্য প্রথমে উকিল নোটিশ এবং পরবর্তীতে বর্তমান কমিটির কার্যক্রমের বিরুদ্ধে স্থায়ী নিষেধাজ্ঞা চেয়ে চাঁদপুর সদর সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

গত সোমবার (২২ আগষ্ট) মামলাটি দায়ের করেন অভিভাক ও পরিচালনা পর্ষদ নির্বাচনের ভোটার কুমুরুয়া গ্রামের ইব্রাহীম খলিল মিয়াজীর ছেলে মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম মিয়াজী। মামলায় বিবাদী করা হয়েছে ফরক্কাবাদ ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষকে।

মামলার বিবরণ থেকে জানাগেছে, ফরক্কাবাদ ডিগ্রি কলেজ কমিটির মেয়াদ চলতি বছরের ১৭ মার্চ শেষ হয়। কলেজ পরিচালনার জন্য গত ২২ মার্চ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের INSO2-3/00089/2016/3977/৫৩৬৪৩ নং স্মারকে ২২ মার্চ থেকে পরবর্তী ৬ মাসের জন্য এডহক কমিটি গঠন করা হয়। উক্ত এডহক কমিটির মেয়াদ আগামী ২২ সেপ্টেম্বর শেষ হবে। কলেজ পরিচালনার ক্ষেত্রে আইন অনুযায়ী নির্বাচনের মাধ্যমে পরিচালনা কমিটি নির্বাচিত হয়। কিন্তু বহুদিন অর্থাৎ ২০১৮ সালের পর এই পর্যন্ত কোন নির্বাচিত কমিটি গঠন হয়নি। বিবাদী পক্ষ পারস্পরিক যোগসাজসে অবৈধভাবে নিয়মিত পরিচালনা কমিটি গঠনের ষড়যন্ত্র করছেন। উক্ত ষড়যন্ত্র বাদী পক্ষ জেনে গত ৬ জুলাই আইনজীবীর মাধ্যমে আইনি নোটিশ পাঠান। উক্ত নোটিশ ডাক মারফতে বিবাদী পক্ষ কলেজের অধ্যক্ষ প্রাপ্ত হন। কিন্তু তিনি এখন পর্যন্ত কোন জবাব দেননি।

এদিকে কলেজের এডহক কমিটির মেয়াদ আগামী ২২ সেপ্টেম্বর ২০২২ শেষ হবে। এমতাবস্থায় বিবাদীপক্ষ নির্বাচন পাশ কাটিয়ে বেআইনিভাবে নিয়মিত কমিটি করে তা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে জমা দেয়ার জন্য সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে মর্মে বাদী পক্ষ ২১ আগষ্ট জানতে পারেন।

তিনি মামলায় আরো উল্লেখ করেন, নির্বাচিত কমিটি ছাড়া কলেজের অনির্বাচিত কমিটির মাধ্যমে কলেজ পরিচালনা হলে প্রশাসনিক জটিলতা ও তহবিল তছরূপ হবে, ছাত্র-ছাত্রীদের পড়াশুনা ক্ষতিগ্রস্থ এবং দায়বদ্ধতা থাকবে না। পাশাপাশি কলেজের শিক্ষার পরিবেশ নষ্ট হবে অর্থাৎ জনস্বার্থ বিঘ্নিত হবে। যার ফলে তিনি নির্বাচন এবং বর্তমান কমিটির বিরুদ্ধে স্থায়ী নিষেধাজ্ঞা চেয়ে মামলা করেন।

বাদীর মামলাটি সিনিয়র সহকারী জজ আদালত আমলে নেন (মামলা নং-৩২৭/২০২২) এবং আদেশনামায় উল্লেখ করা হয়-অদ্য ২২ আগষ্ট বাদীপক্ষ কর্তৃক দাখিলী আরজি দেওয়ানী মোকদ্দমা হিসাবে সংশ্লিষ্ট রেজিষ্টারে তালিকাভুক্ত করা হোক। সেরেস্তাদারের প্রতিবেদন দেখিলাম। বাদীপক্ষ আইন অনুযায়ী নির্বাচন ব্যতিত ফরক্কাবাদ ডিগ্রী কলেজ এর কোন প্রকার ম্যানেজিং কমিটি বেআইনীভাবে গঠন করিতে না পারে তৎবিষয়ে স্থায়ী নিষেধাজ্ঞা প্রার্থনায় মং ১০ হাজার টাকা তায়দাদ ধৃতে মং ৩শ’ টাকার কোর্ট ফি প্রদানে অত্র মোকদ্দমা আনয়ন করিয়াছে। বাদী পক্ষের দেয় তায়দাদ আপাততঃ গ্রহণ করা গেল। বাদী পক্ষ ফিরিস্তি যোগে কাগজপত্র দাখিল করিয়াছে। দাখিলী কাগজপত্র নথির সামিলে রাখা হউক। বাদীপক্ষ তলবানা সহকারে বিবাদীর নামীয় পদাতিক ও ডাক সমন দাখিল করিয়াছে। উহা জারির জন্য ইস্যু করা হউক। আগামী ২২ সেপ্টেম্বর তারিখে মূল কাগজপত্র দাখিল এবং জারী ফেরতের জন্য ধার্য করা হইল।

Sharing is caring!

[sharethis-inline-buttons]

আরও পড়ুন

  • চাঁদপুর সদর এর আরও খবর