ঢাকা ১১:১৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শাহরাস্তিতে অবৈধভাবে সরকারি খাল দখল করে স্থায়ী ইমারত নির্মাণ

  • আপডেট: ০৭:৫৭:১৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০১৯
  • ২৩

শাহরাস্তি প্রতিনিধিঃ

শাহরাস্তিতে অবৈধভাবে সরকারি খাল দখল করে স্থায়ী ইমারত নির্মান, পানি নিস্কাশনে বাধা। ক্ষমতাশীন দলের ভুমি দস্যু, অথচ সরকার নিজস্ব জমি অবৈধ দখল কারিদের হাত থেকে দখল মুক্ত করতে দেশে উচ্ছেধ অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে, এ দিকে চাঁদপুর জেলা প্রশাসকের নির্দেশে উচ্ছেদ অভিযান চললে ও শাহরাস্তি উপজেলায় কোনো উচ্ছেধ অভিযান হয়নি, এই নিয়ে প্রশ্ন উপজেলাবাসির, সরজমিন দেখা যায় উপজেলার পৌর শহরের প্রাণ কেন্দ্র ঠাকুর বাজারে প্রাচিনতম সরকারি মেহার গোদা খাল কয়েকজন ব্যবসায়ী অবৈধ ভাবে খাল দখল করে স্থায়ী ইমারত দখল করে রমজমাট ব্যাবসা করে আসছে। এই নিয়ে নানা গুনজন চলছে। প্রশাসনের নাকের ঢোগায় পানি নিস্কাশন বন্ধ করে খান দখল করে ব্যবসায় করে আসছে। এ বিষয়ে কয়েকজন ব্যবসায়ী জানান দির্ঘদিন দিন যাবৎ দলীয় প্রভাব বিস্তার করে গুটি কয়েকজন জমি দখল করে বহুতল বভন নির্ন্মন করে। বাণিজ্যিক ব্যবসা সহ ফ্যমিলী ব্যবসা করে যাচ্ছে পৌর মেয়র, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা প্রশাসনের নাকের ঢগায় এভাবে খাল দখল করে আসছে। কিন্তু মনেহয় প্রশাসন যেন ঘুমিয়ে রয়েছে। এদিকে প্রাচিনতম এই খাল দিয়ে কোন এক সময় নৌকা যোগে আমদানি ও রপ্তানি মালামাল উঠা নামা করতো, আজ খাল দখল কারিদের কারনে খালের প্রস্হ্যতা কমে গিয়ে পানি শুকিয়ে মরে যাচ্ছে, ফলে বাজারের পানি নিশ্কাসন ব্যবস্থা অতি যুকিপূর্ণ। এ খালটি নদীর সাথে সংযোগ থাকায় উপজেলার কৃষকরা খালের পানি ব্যবহার করে কৃষি ফলন ফলাত, আজ পানির কারনে কৃষকেরা মারাক্তক ভাবে ক্ষতি গ্রস্হ্য হতে চলেছে, সরকার কৃষি খাতকে উন্নত করতে নানাহ ভাবে সহযোগীতা করে আসছে, এক সময় এই খাল কৃষকের প্রাণ, যেই প্রানকে ভুমি দস্যুরা তার কোন প্রতিকার না থাকায় মাহামারি আকারে দারন করেছে সরকারি খাল দখলের লড়াই চলছে। তাই এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের নিকট সরকারি খাল দখল মুক্ত করার দাবি জানান এলাকাবাসি সহ সচেতন মহল।

Tag :
সর্বাধিক পঠিত

ধর্ষণের মামলায় মাওলানা নাছির পাটোয়ারীকে আটক করলো র‌্যাব

শাহরাস্তিতে অবৈধভাবে সরকারি খাল দখল করে স্থায়ী ইমারত নির্মাণ

আপডেট: ০৭:৫৭:১৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০১৯

শাহরাস্তি প্রতিনিধিঃ

শাহরাস্তিতে অবৈধভাবে সরকারি খাল দখল করে স্থায়ী ইমারত নির্মান, পানি নিস্কাশনে বাধা। ক্ষমতাশীন দলের ভুমি দস্যু, অথচ সরকার নিজস্ব জমি অবৈধ দখল কারিদের হাত থেকে দখল মুক্ত করতে দেশে উচ্ছেধ অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে, এ দিকে চাঁদপুর জেলা প্রশাসকের নির্দেশে উচ্ছেদ অভিযান চললে ও শাহরাস্তি উপজেলায় কোনো উচ্ছেধ অভিযান হয়নি, এই নিয়ে প্রশ্ন উপজেলাবাসির, সরজমিন দেখা যায় উপজেলার পৌর শহরের প্রাণ কেন্দ্র ঠাকুর বাজারে প্রাচিনতম সরকারি মেহার গোদা খাল কয়েকজন ব্যবসায়ী অবৈধ ভাবে খাল দখল করে স্থায়ী ইমারত দখল করে রমজমাট ব্যাবসা করে আসছে। এই নিয়ে নানা গুনজন চলছে। প্রশাসনের নাকের ঢোগায় পানি নিস্কাশন বন্ধ করে খান দখল করে ব্যবসায় করে আসছে। এ বিষয়ে কয়েকজন ব্যবসায়ী জানান দির্ঘদিন দিন যাবৎ দলীয় প্রভাব বিস্তার করে গুটি কয়েকজন জমি দখল করে বহুতল বভন নির্ন্মন করে। বাণিজ্যিক ব্যবসা সহ ফ্যমিলী ব্যবসা করে যাচ্ছে পৌর মেয়র, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা প্রশাসনের নাকের ঢগায় এভাবে খাল দখল করে আসছে। কিন্তু মনেহয় প্রশাসন যেন ঘুমিয়ে রয়েছে। এদিকে প্রাচিনতম এই খাল দিয়ে কোন এক সময় নৌকা যোগে আমদানি ও রপ্তানি মালামাল উঠা নামা করতো, আজ খাল দখল কারিদের কারনে খালের প্রস্হ্যতা কমে গিয়ে পানি শুকিয়ে মরে যাচ্ছে, ফলে বাজারের পানি নিশ্কাসন ব্যবস্থা অতি যুকিপূর্ণ। এ খালটি নদীর সাথে সংযোগ থাকায় উপজেলার কৃষকরা খালের পানি ব্যবহার করে কৃষি ফলন ফলাত, আজ পানির কারনে কৃষকেরা মারাক্তক ভাবে ক্ষতি গ্রস্হ্য হতে চলেছে, সরকার কৃষি খাতকে উন্নত করতে নানাহ ভাবে সহযোগীতা করে আসছে, এক সময় এই খাল কৃষকের প্রাণ, যেই প্রানকে ভুমি দস্যুরা তার কোন প্রতিকার না থাকায় মাহামারি আকারে দারন করেছে সরকারি খাল দখলের লড়াই চলছে। তাই এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের নিকট সরকারি খাল দখল মুক্ত করার দাবি জানান এলাকাবাসি সহ সচেতন মহল।