ঢাকা ০৪:৩১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রংপুরে বাসচাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

  • আপডেট: ০৭:৩৩:৫৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৯ জুন ২০১৯
  • ১৯

notunerkotha.com

রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলায় যাত্রীবাহী বাসের ধাক্কায় তিন মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। শুক্রবার রাত ১১টার দিকে উপজেলার শঠিবাড়ি ফিলিং স্টেশনের সংলগ্ন ঢাকা-রংপুর মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- মুরাদ (৩৩), মধু (৩৪) এবং শম্ভু (৩৩)। এদের মধ্যে মুরাদ হোসেন ঘটনাস্থলে, মধু মিয়া মিঠাপুকুর উপজেলা হাসপাতালে এবং শম্ভু রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা গেছেন। তাদের সবার বাড়ি রংপুর সদর উপজেলার সদ্যপুস্করণী ইউনিয়নের ভুরারঘাট এলাকায়।
বিষয়টি মিঠাপুকুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাফর আলী বিশ্বাস নিশ্চিত করেছেন।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, শম্ভু শঠিবাড়ির একটি মোটর গ্যারেজে বডিমিস্ত্রীর কাজ করতেন। শুক্রবার রাত ১১টার দিকে অপর দুইজনকে নিয়ে মোটরসাইকেলে গ্যারেজ থেকে বের হচ্ছিলেন শম্ভু। এ সময় রংপুর-ঢাকা মহাসড়ক পার হতে গিয়ে রংপুর থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী একটি বাস মোটরসাইকেলটিকে সামনে থেকে চাপা দেয়। এতে বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে মুরাদ মিয়া ঘটনাস্থলেই নিহত ও অপর দুইজন গুরতর আহত হন। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে মিঠাপুকুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মুরাদ মধুকে মৃত ঘোষণা করেন।

আশঙ্কাজনক অবস্থায় শম্ভুকে সেখান থেকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত দেড়টার দিকে মারা যান শম্ভু।

এদিকে দুর্ঘটনার পর উত্তেজিত লোকজন বাসটি আটক করে ভাঙচুর করে। তবে চালক ও হেলপার পালিয়ে যায়।

বিষয়টি নিয়ে মিঠাপুকুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাফর আলী বিশ্বাস বলেন, মরদেহ ময়নাতদন্তের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের সাথে কথা বলে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

Tag :
সর্বাধিক পঠিত

ধর্ষণের মামলায় মাওলানা নাছির পাটোয়ারীকে আটক করলো র‌্যাব

রংপুরে বাসচাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

আপডেট: ০৭:৩৩:৫৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৯ জুন ২০১৯

notunerkotha.com

রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলায় যাত্রীবাহী বাসের ধাক্কায় তিন মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। শুক্রবার রাত ১১টার দিকে উপজেলার শঠিবাড়ি ফিলিং স্টেশনের সংলগ্ন ঢাকা-রংপুর মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- মুরাদ (৩৩), মধু (৩৪) এবং শম্ভু (৩৩)। এদের মধ্যে মুরাদ হোসেন ঘটনাস্থলে, মধু মিয়া মিঠাপুকুর উপজেলা হাসপাতালে এবং শম্ভু রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা গেছেন। তাদের সবার বাড়ি রংপুর সদর উপজেলার সদ্যপুস্করণী ইউনিয়নের ভুরারঘাট এলাকায়।
বিষয়টি মিঠাপুকুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাফর আলী বিশ্বাস নিশ্চিত করেছেন।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, শম্ভু শঠিবাড়ির একটি মোটর গ্যারেজে বডিমিস্ত্রীর কাজ করতেন। শুক্রবার রাত ১১টার দিকে অপর দুইজনকে নিয়ে মোটরসাইকেলে গ্যারেজ থেকে বের হচ্ছিলেন শম্ভু। এ সময় রংপুর-ঢাকা মহাসড়ক পার হতে গিয়ে রংপুর থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী একটি বাস মোটরসাইকেলটিকে সামনে থেকে চাপা দেয়। এতে বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে মুরাদ মিয়া ঘটনাস্থলেই নিহত ও অপর দুইজন গুরতর আহত হন। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে মিঠাপুকুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মুরাদ মধুকে মৃত ঘোষণা করেন।

আশঙ্কাজনক অবস্থায় শম্ভুকে সেখান থেকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত দেড়টার দিকে মারা যান শম্ভু।

এদিকে দুর্ঘটনার পর উত্তেজিত লোকজন বাসটি আটক করে ভাঙচুর করে। তবে চালক ও হেলপার পালিয়ে যায়।

বিষয়টি নিয়ে মিঠাপুকুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাফর আলী বিশ্বাস বলেন, মরদেহ ময়নাতদন্তের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের সাথে কথা বলে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।