ঢাকা ০৩:৫৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফটিকছড়িতে ফেনী নদীতে খেলার সঙ্গীকে বাঁচাতে গিয়ে একে একে ৩ শিশুর মৃত্যু

  • আপডেট: ০৩:৫৯:০৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০১৯
  • ১২

রামগড় প্রতিনিধি:

খেলার সঙ্গীকে বাঁচাতে গিয়ে একে একে সহোদরসহ তিনটি শিশু ফেনী নদীতে ডুবে মারা গেছে। বৃহস্পতিবার খাগড়াছড়ির রামগড়ের সীমান্তবর্তী ফটিকছড়িতে বাগান বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে। পরে ৬ ঘণ্টার চেষ্টায় ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিদল তাদের মরদেহ উদ্ধার করেছে।

নিহতরা শিশুরা হলো- বাগানবাজার ইউনিয়নের পুরান রামগড়ের বাসিন্দা প্রবাসী বোরহান উদ্দিনের ছেলে জুবায়ের হোসেন (১৪), আজহার উদ্দিন (১২) এবং পূর্ব হলুদিয়ার মোহাম্মদ আলীর ছেলে তৌহিদুল আলম (৭)।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, নিহত শিশুরা নানা নুরুল ইসলাম মেম্বারের বাড়িতে বেড়াতে এসে গরমে ফেনী নদীতে গোসল করতে নামে। বিকালে নিজ বাড়িতে তাদের ফেরার কথা থাকলেও ফিরেছে লাশ হয়ে।

পরে ফায়ার সার্ভিসের সঙ্গে রামগড় যুব রেড ক্রিসেন্ট ও এলাকার কয়েকশ মানুষ তিন ঘণ্টার যৌথ উদ্ধার কার্যক্রমে শিশুদের উদ্ধার করতে না পেরে চট্রগ্রাম থেকে ডুবুরিদল এসে সন্ধ্যা ৬টার সময় একে একে তিন শিশুর লাশ উদ্ধার করে।

রামগড় ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন ইনচার্জ ডলার ত্রিপুরা জানান, খবর পেয়ে শিশুদের উদ্ধারে চেষ্টা করা হয়। পরে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিদের সহযোগিতায় সন্ধ্যার দিকে তিন শিশুকে উদ্ধার করা হয়।

তিনি বলেন, নদীতে পানি কম থাকলেও যে অংশে তারা নিখোঁজ হয়, সেখানে প্রায় ২০ ফুট গভীর কূপ ছিল। সে কূপেই তারা তলিয়ে যায়।

Tag :
সর্বাধিক পঠিত

ফটিকছড়িতে ফেনী নদীতে খেলার সঙ্গীকে বাঁচাতে গিয়ে একে একে ৩ শিশুর মৃত্যু

আপডেট: ০৩:৫৯:০৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০১৯

রামগড় প্রতিনিধি:

খেলার সঙ্গীকে বাঁচাতে গিয়ে একে একে সহোদরসহ তিনটি শিশু ফেনী নদীতে ডুবে মারা গেছে। বৃহস্পতিবার খাগড়াছড়ির রামগড়ের সীমান্তবর্তী ফটিকছড়িতে বাগান বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে। পরে ৬ ঘণ্টার চেষ্টায় ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিদল তাদের মরদেহ উদ্ধার করেছে।

নিহতরা শিশুরা হলো- বাগানবাজার ইউনিয়নের পুরান রামগড়ের বাসিন্দা প্রবাসী বোরহান উদ্দিনের ছেলে জুবায়ের হোসেন (১৪), আজহার উদ্দিন (১২) এবং পূর্ব হলুদিয়ার মোহাম্মদ আলীর ছেলে তৌহিদুল আলম (৭)।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, নিহত শিশুরা নানা নুরুল ইসলাম মেম্বারের বাড়িতে বেড়াতে এসে গরমে ফেনী নদীতে গোসল করতে নামে। বিকালে নিজ বাড়িতে তাদের ফেরার কথা থাকলেও ফিরেছে লাশ হয়ে।

পরে ফায়ার সার্ভিসের সঙ্গে রামগড় যুব রেড ক্রিসেন্ট ও এলাকার কয়েকশ মানুষ তিন ঘণ্টার যৌথ উদ্ধার কার্যক্রমে শিশুদের উদ্ধার করতে না পেরে চট্রগ্রাম থেকে ডুবুরিদল এসে সন্ধ্যা ৬টার সময় একে একে তিন শিশুর লাশ উদ্ধার করে।

রামগড় ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন ইনচার্জ ডলার ত্রিপুরা জানান, খবর পেয়ে শিশুদের উদ্ধারে চেষ্টা করা হয়। পরে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিদের সহযোগিতায় সন্ধ্যার দিকে তিন শিশুকে উদ্ধার করা হয়।

তিনি বলেন, নদীতে পানি কম থাকলেও যে অংশে তারা নিখোঁজ হয়, সেখানে প্রায় ২০ ফুট গভীর কূপ ছিল। সে কূপেই তারা তলিয়ে যায়।