ঢাকা ০৭:২৭ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চাঁদপুরে প্রায় ১২ লক্ষ কারেন্ট জাল জব্দ

  • আপডেট: ০৮:২৩:০৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১
  • ১০

নিজস্ব প্রতিবেদক:

ইলিশের প্রধান প্রজনন মৌসুম নিরাপদ করতে ৪ অক্টোবর থেকে ২৫ অক্টোবর পর্যন্ত ২২ দিন নদ-নদী এবং সাগরে সব ধরনের মাছ শিকারের উপর নিষেধাজ্ঞা চলাকালে ডিমওয়ালা মা ইলিশ রক্ষায় চাঁদপুরের সদর উপজেলার মেঘনা নদীতে অভিযান চালিয়েছে টাস্কফোর্স কমিটি। অভিযান পরিচালনা করেন সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সানজিদা শাহনাজ।

শুক্রবার ভোর ৬টা থেকে সকাল ১০টা পর্যন্ত মেঘনা নদীতে চাঁদপুর সদরের আখন্দ ঘাট,হরিনা আলুরবাজার,হরিণা,মিনি কক্সবাজার, আকুনের হাট পর্যন্ত উপজেলা নির্বাহী অফিসার সানজিদা শাহনাজ নেতৃত্বে এই অভিযান চলে। মৎস্য অফিস,নৌ-বাহিনী,কোস্টগার্ড এই অভিযানে সহায়তা করেন।

অভিযান পরিচালনাকালে নদীতে ১১ লক্ষ ৯০ হাজার মিটার নিষিদ্ধ কারেন্ট জাল,৩০ ছাই ও ৩০ কেজি মা ইলিশ জব্দ করা হয়। জব্দ কৃত জাল প্রকাশ্যে পুড়িয়ে ফেলা হয়। জব্দ কৃত মাছ সরকারি শিশু পরিবারকে দেয়া হয়।

অভিযান পরিচালনাকালে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সানজিদা শাহনাজ বলেন, ইলিশের প্রজনন নিরাপদ করতে সব ধরনের মাছ শিকারে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে সরকার। আমরা সরকারের নির্দেশনা মেনে অভিযান পরিচালনা করছি। আমরা মা ইলিশ রক্ষা প্রহরী হিসেবে কাজ করবো। সরকারি নিষেধাজ্ঞা কেউ অমান্য করলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা । এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন,চাঁদপুর সদর এসিল্যান্ড মুহাম্মদ হেলাল চৌধুরী, কোস্টগার্ডের স্টেশন কমান্ডার সাব লে. রোহান মঞ্জর, চাঁদপুর নেভি’র লে.জাহিদ,চাঁদপুর সদর উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা সুদীপ ভট্টাচার্য প্রমুখ।
পরে বিকালে সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সানজিদা শাহনাজ এক অভিযান পরিচালনা করেন।

Tag :
সর্বাধিক পঠিত

ধর্ষণের মামলায় মাওলানা নাছির পাটোয়ারীকে আটক করলো র‌্যাব

চাঁদপুরে প্রায় ১২ লক্ষ কারেন্ট জাল জব্দ

আপডেট: ০৮:২৩:০৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক:

ইলিশের প্রধান প্রজনন মৌসুম নিরাপদ করতে ৪ অক্টোবর থেকে ২৫ অক্টোবর পর্যন্ত ২২ দিন নদ-নদী এবং সাগরে সব ধরনের মাছ শিকারের উপর নিষেধাজ্ঞা চলাকালে ডিমওয়ালা মা ইলিশ রক্ষায় চাঁদপুরের সদর উপজেলার মেঘনা নদীতে অভিযান চালিয়েছে টাস্কফোর্স কমিটি। অভিযান পরিচালনা করেন সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সানজিদা শাহনাজ।

শুক্রবার ভোর ৬টা থেকে সকাল ১০টা পর্যন্ত মেঘনা নদীতে চাঁদপুর সদরের আখন্দ ঘাট,হরিনা আলুরবাজার,হরিণা,মিনি কক্সবাজার, আকুনের হাট পর্যন্ত উপজেলা নির্বাহী অফিসার সানজিদা শাহনাজ নেতৃত্বে এই অভিযান চলে। মৎস্য অফিস,নৌ-বাহিনী,কোস্টগার্ড এই অভিযানে সহায়তা করেন।

অভিযান পরিচালনাকালে নদীতে ১১ লক্ষ ৯০ হাজার মিটার নিষিদ্ধ কারেন্ট জাল,৩০ ছাই ও ৩০ কেজি মা ইলিশ জব্দ করা হয়। জব্দ কৃত জাল প্রকাশ্যে পুড়িয়ে ফেলা হয়। জব্দ কৃত মাছ সরকারি শিশু পরিবারকে দেয়া হয়।

অভিযান পরিচালনাকালে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সানজিদা শাহনাজ বলেন, ইলিশের প্রজনন নিরাপদ করতে সব ধরনের মাছ শিকারে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে সরকার। আমরা সরকারের নির্দেশনা মেনে অভিযান পরিচালনা করছি। আমরা মা ইলিশ রক্ষা প্রহরী হিসেবে কাজ করবো। সরকারি নিষেধাজ্ঞা কেউ অমান্য করলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা । এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন,চাঁদপুর সদর এসিল্যান্ড মুহাম্মদ হেলাল চৌধুরী, কোস্টগার্ডের স্টেশন কমান্ডার সাব লে. রোহান মঞ্জর, চাঁদপুর নেভি’র লে.জাহিদ,চাঁদপুর সদর উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা সুদীপ ভট্টাচার্য প্রমুখ।
পরে বিকালে সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সানজিদা শাহনাজ এক অভিযান পরিচালনা করেন।