ঢাকা ০৭:১০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চাঁদপুরে সংস্কৃতি খাতে অপ্রতুল বাজেট বরাদ্দের প্রতিবাদে মনববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তরা

  • আপডেট: ০১:৫৯:১৬ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক:
বাজেট ঘোষনায় ২০১৯-২০২০ অর্থ বছরে সংস্কৃতি খাতে অপ্রতুল বাজেট বরাদ্দের প্রতিবাদে মনববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার বিকেলে চাঁদপুর শিল্পকলা একাডেমীর সামনে চট্টগ্রাম বিভাগ-চাঁদপুর অঞ্চলের বাংলাদেশ গ্রুফ থিয়েটার ফেডারেশনের আহ্বানে ও চাঁদপুরের সকল সাংস্কৃতিক সংগঠনের আয়োজনে এ মনববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ কর্মসূচি পান করা হয়।

চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি, বাংলাদেশ গ্রুফ থিয়েটার ফেডারেশনের নির্বাহী সদস্য ও চাঁদপুর থিয়েটার ফোরামের সভাপতি শহীদ পাটওয়ারীর সভাপতিত্বে বক্তরা বলেন সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, নারী নির্যাতন ও বাল্যবিবাহসহ সকল সামাজিক কার্যক্রমে সরকারের সাথে একাত্বতা পোষন করে সাংস্কৃতিক সংগঠনের কর্মীরা আন্দোলন সংগ্রাম করে আসছে। বাংলাদেশ আজ বিশে^র দরবারে উন্নত দেশ হিসেবে পরিচিতি পাচ্ছে। সরকার সবকিছুতে বাজেটের হার বাড়িয়েছে কিন্তু ২০১৯-২০২০ অর্থ বছরে সংস্কৃতি খাতে খুবই অপ্রতুল বাজেট ঘোষনা করা হয়েছে। যা দিয়ে কোন ভাবেই সংস্কৃতি কর্মকান্ডে উন্নতি সাধন করা যাবে না। তাই সংস্কৃতি কর্মকান্ডকে প্রসারিত করতে আরো বরাদ্দ প্রয়োজন।

বক্তরা আরো বলেন, সংস্কৃতি কর্মীরা সমাজ বিনির্মানে কাজ করে আসছে। আমরা সরকারের সকল উন্নয়নে ভূমিকা পালন করে আসছি। বাংলাদেশ যে আরে এগিয়ে যাচ্ছে, এতে আমরা কেনো পিছিয়ে পড়বো। তাই সরকারের পক্ষ থেকে আমাদের জন্য বরাদ্দকৃত বাজেট আরো বাড়ানোর দাবি জানাচ্ছি। সংস্কৃতি মন্ত্রনালয়ের অধিনে সারাদেশে প্রায় ১২শ’ অফিস পরিচালিত হচ্ছে। এগুলোর উন্নয়ন এ বরাদ্দকৃত দিয়ে কোন ভাবেই হবে। তাই সংস্কৃতির বন্ধন অটুট রাখতে অবশ্যই বাজে বৃদ্ধি করা দরকার।

বর্ণচোরা নাট্যগোষ্ঠির সাধারণ শরীফ চৌধুরীরর পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর শিল্পকলা একাডেমীর কালচারাল অফিসার সৈয়দ আয়াজ মাহবুদ, সম্মিলিত সংস্কৃতি জোট চাঁদপুর জেলা শাখার সভাপতি তপন সরকার, চাঁদপুর খেলাঘর আসরের সাধারণ সম্পাদক শ্যাস সুন্দর মন্ডল, অন্যান্য নাটগোষ্ঠির সিনিয়র সদস্য বি এম হান্নান, কন্ঠশিল্পী ইতু চক্রবর্তী, রূপালী চম্পক, চতুরঙ্গ সাংস্কৃতি সংগঠনের ভাইস চেয়ারম্যান কৃষ্ণা সাহা, চাঁদপুর ড্রমার সাবেক সাধারণ সম্পাদক মানিক পোদ্দার, অনুপন নাট্যদলের সাধারণ সম্পাদক গোবিন্দ মন্ডল, অন্যন্যা নাটগোষ্ঠির সাধারণ সম্পাদক মৃণাল সরকার, স্বরলীপী নাট্যদলের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এম আর ইসলাম বাবু, চাঁদপুর ড্রামার ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক কৃষ্ণ গোপাল সরকার, লেখক রফিকুজ্জামান রণি, জাহঙ্গীর হোসেন, নতুন কুড়ির সভাপতি আবুল কালাম সরকার, নাট্যকর্মী জয়রাম রায়সহ বিভিন্ন সাংস্কৃতি সংগঠনের কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

Tag :
সর্বাধিক পঠিত

গরু-ছাগলে ভরে গেছে হাট, তবে নেই ক্রেতা

চাঁদপুরে সংস্কৃতি খাতে অপ্রতুল বাজেট বরাদ্দের প্রতিবাদে মনববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তরা

আপডেট: ০১:৫৯:১৬ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক:
বাজেট ঘোষনায় ২০১৯-২০২০ অর্থ বছরে সংস্কৃতি খাতে অপ্রতুল বাজেট বরাদ্দের প্রতিবাদে মনববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার বিকেলে চাঁদপুর শিল্পকলা একাডেমীর সামনে চট্টগ্রাম বিভাগ-চাঁদপুর অঞ্চলের বাংলাদেশ গ্রুফ থিয়েটার ফেডারেশনের আহ্বানে ও চাঁদপুরের সকল সাংস্কৃতিক সংগঠনের আয়োজনে এ মনববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ কর্মসূচি পান করা হয়।

চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি, বাংলাদেশ গ্রুফ থিয়েটার ফেডারেশনের নির্বাহী সদস্য ও চাঁদপুর থিয়েটার ফোরামের সভাপতি শহীদ পাটওয়ারীর সভাপতিত্বে বক্তরা বলেন সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, নারী নির্যাতন ও বাল্যবিবাহসহ সকল সামাজিক কার্যক্রমে সরকারের সাথে একাত্বতা পোষন করে সাংস্কৃতিক সংগঠনের কর্মীরা আন্দোলন সংগ্রাম করে আসছে। বাংলাদেশ আজ বিশে^র দরবারে উন্নত দেশ হিসেবে পরিচিতি পাচ্ছে। সরকার সবকিছুতে বাজেটের হার বাড়িয়েছে কিন্তু ২০১৯-২০২০ অর্থ বছরে সংস্কৃতি খাতে খুবই অপ্রতুল বাজেট ঘোষনা করা হয়েছে। যা দিয়ে কোন ভাবেই সংস্কৃতি কর্মকান্ডে উন্নতি সাধন করা যাবে না। তাই সংস্কৃতি কর্মকান্ডকে প্রসারিত করতে আরো বরাদ্দ প্রয়োজন।

বক্তরা আরো বলেন, সংস্কৃতি কর্মীরা সমাজ বিনির্মানে কাজ করে আসছে। আমরা সরকারের সকল উন্নয়নে ভূমিকা পালন করে আসছি। বাংলাদেশ যে আরে এগিয়ে যাচ্ছে, এতে আমরা কেনো পিছিয়ে পড়বো। তাই সরকারের পক্ষ থেকে আমাদের জন্য বরাদ্দকৃত বাজেট আরো বাড়ানোর দাবি জানাচ্ছি। সংস্কৃতি মন্ত্রনালয়ের অধিনে সারাদেশে প্রায় ১২শ’ অফিস পরিচালিত হচ্ছে। এগুলোর উন্নয়ন এ বরাদ্দকৃত দিয়ে কোন ভাবেই হবে। তাই সংস্কৃতির বন্ধন অটুট রাখতে অবশ্যই বাজে বৃদ্ধি করা দরকার।

বর্ণচোরা নাট্যগোষ্ঠির সাধারণ শরীফ চৌধুরীরর পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর শিল্পকলা একাডেমীর কালচারাল অফিসার সৈয়দ আয়াজ মাহবুদ, সম্মিলিত সংস্কৃতি জোট চাঁদপুর জেলা শাখার সভাপতি তপন সরকার, চাঁদপুর খেলাঘর আসরের সাধারণ সম্পাদক শ্যাস সুন্দর মন্ডল, অন্যান্য নাটগোষ্ঠির সিনিয়র সদস্য বি এম হান্নান, কন্ঠশিল্পী ইতু চক্রবর্তী, রূপালী চম্পক, চতুরঙ্গ সাংস্কৃতি সংগঠনের ভাইস চেয়ারম্যান কৃষ্ণা সাহা, চাঁদপুর ড্রমার সাবেক সাধারণ সম্পাদক মানিক পোদ্দার, অনুপন নাট্যদলের সাধারণ সম্পাদক গোবিন্দ মন্ডল, অন্যন্যা নাটগোষ্ঠির সাধারণ সম্পাদক মৃণাল সরকার, স্বরলীপী নাট্যদলের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এম আর ইসলাম বাবু, চাঁদপুর ড্রামার ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক কৃষ্ণ গোপাল সরকার, লেখক রফিকুজ্জামান রণি, জাহঙ্গীর হোসেন, নতুন কুড়ির সভাপতি আবুল কালাম সরকার, নাট্যকর্মী জয়রাম রায়সহ বিভিন্ন সাংস্কৃতি সংগঠনের কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।