ঢাকা ০৬:৪৪ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভেজাল খাদ্য পণ্যের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানাতে হটলাইন চালুর নির্দেশ

  • আপডেট: ০৮:১৮:১৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০১৯
  • ১৩

নতুনেরকথা অনলাইন :

ভেজাল খাদ্য পণ্যের বিরুদ্ধে ভোক্তারা যেকোনো সময় অভিযোগ জানাতে পারে সেজন্য আগামী ২ মাসের মধ্যে হটলাইন সার্ভিস চালুর নির্দেশ নিয়েছেন হাইকোর্ট। আদালতের বেধে দেওয়া এই সময়ের মধ্যেই হটলাইন সার্ভিস চালু করতে জাতীয় ভোক্তা সংরক্ষণ অধিদপ্তরকে নির্দেশ দেওয়া হয়।

একইসঙ্গে বিএসটিআইয়ের নির্ধারিত ৪০৬ পণ্যসহ অন্যান্য যেসব পণ্য বাজারে রয়েছে সেগুলোর উপর বছরজুড়ে পরীক্ষা করার জন্য বিএসটিআইকে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি রাজিব আল জলিলের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ আজ রোববার এ আদেশ দেন।

এর আগে আদালতের তলব আদেশে হাইকোর্টে হাজির হন নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মাহফুজুল হক। একইসঙ্গে তিনি আদালতের আদেশ বাস্তবায়ন না করায় নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করেন। পরে আদালত তার আবেদন মঞ্জুর করে তাকে ব্যক্তিগত হাজিরা থেকে অব্যাহতি দেন।

আদালতে নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের পক্ষে ব্যারিস্টার কামাল উল আলম, বিএসটিআইয়ের পক্ষে সরকার এমআর হাসান ও ভোক্তা সংরক্ষণ অধিদপ্তরের পক্ষে কামরুজ্জমান কচি শুনানি করেন।

Tag :
সর্বাধিক পঠিত

ভেজাল খাদ্য পণ্যের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানাতে হটলাইন চালুর নির্দেশ

আপডেট: ০৮:১৮:১৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০১৯

নতুনেরকথা অনলাইন :

ভেজাল খাদ্য পণ্যের বিরুদ্ধে ভোক্তারা যেকোনো সময় অভিযোগ জানাতে পারে সেজন্য আগামী ২ মাসের মধ্যে হটলাইন সার্ভিস চালুর নির্দেশ নিয়েছেন হাইকোর্ট। আদালতের বেধে দেওয়া এই সময়ের মধ্যেই হটলাইন সার্ভিস চালু করতে জাতীয় ভোক্তা সংরক্ষণ অধিদপ্তরকে নির্দেশ দেওয়া হয়।

একইসঙ্গে বিএসটিআইয়ের নির্ধারিত ৪০৬ পণ্যসহ অন্যান্য যেসব পণ্য বাজারে রয়েছে সেগুলোর উপর বছরজুড়ে পরীক্ষা করার জন্য বিএসটিআইকে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি রাজিব আল জলিলের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ আজ রোববার এ আদেশ দেন।

এর আগে আদালতের তলব আদেশে হাইকোর্টে হাজির হন নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মাহফুজুল হক। একইসঙ্গে তিনি আদালতের আদেশ বাস্তবায়ন না করায় নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করেন। পরে আদালত তার আবেদন মঞ্জুর করে তাকে ব্যক্তিগত হাজিরা থেকে অব্যাহতি দেন।

আদালতে নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের পক্ষে ব্যারিস্টার কামাল উল আলম, বিএসটিআইয়ের পক্ষে সরকার এমআর হাসান ও ভোক্তা সংরক্ষণ অধিদপ্তরের পক্ষে কামরুজ্জমান কচি শুনানি করেন।