• ঢাকা
  • সোমবার, ২৪শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১০ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ৯ জানুয়ারি, ২০২২
সর্বশেষ আপডেট : ৯ জানুয়ারি, ২০২২

জঙ্গিবাদ, বোমাবাজি ও সন্ত্রাসী করে ইসলাম প্রতিষ্ঠিত করা সম্ভব নয়: সৈয়দ মোহাম্মদ বাহাদুর শাহ

অনলাইন ডেস্ক
[sharethis-inline-buttons]
জঙ্গিবাদ, বোমাবাজি ও সন্ত্রাসী করে ইসলাম প্রতিষ্ঠিত করা সম্ভব নয়: সৈয়দ মোহাম্মদ বাহাদুর শাহ
রোববার (৯ জানুয়ারি) ফজরের নামাজের আগে বিশ্ব শান্তি কামনায় ৫৮তম পবিত্র ওরছে নববী দ. ও সুন্নি মহাসমাবেশ-এ আখেরী তকরির পেশ করেন ইমামে আহলে সুন্নাত, আওলাদে রাসূল আল্লামা সাইয়্যেদ বাহাদুর শাহ মোজাদ্দেদী আল আবেদী।

আমরা আল্লাহর দ্বীন থেকে দূরে সরে যাচ্ছি তাই আল্লাহ বিভিন্ন গজব দিয়ে আমাদের ঈমানকে পরীক্ষা করছেন। আল্লাহ ও তাঁর রাসুলের পথে চললে সকল বিপদ দূর হয়ে যাবে। করোনার চেয়েও বেশি ভয় পেতে হবে আল্লাহকে, যিনি করোনা সৃষ্টি করেছেন। ইমামে রাব্বানী দরবার শরীফের গদ্দীনীনশীন পীর ও ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ’র চেয়ারম্যান আল্লামা সৈয়দ মোহাম্মদ বাহাদুর শাহ্ মোজাদ্দেদী আল আবেদী এ কথা বলেন।

তিনি ৫৮তম পবিত্র ওরছে নববী দ. ও সুন্নী মহাসমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশে ১৭ কোটি মুসলমান। কিন্তু প্রকৃত ইসলামের তথা কোরআন-সুন্নাহ চর্চা না থাকায় দেশে ও সমাজে অশান্তি বিরাজ করছে। অদৃশ্য ভয়ে সত্য প্রচার থেকে বিরত থাকছে। নির্দ্বিধায় মিথ্যাকে লালন করছে। সূফিবাদ ও ইলমে তাশাউফের চর্চার মধ্য দিয়ে নিজেকে মুত্বাকী ও ঈমানদার মুসলমান হিসেবে তৈরি করা সম্ভব। জঙ্গিবাদ, বোমাবাজি ও সন্ত্রাসী করে ইসলাম প্রতিষ্ঠিত করা সম্ভব নয়।

পঞ্চদশ শতাব্দীর মুজাদ্দিদ আওলাদে রাসূল দ. আল্লামা আবু নসর সৈয়দ মোহাম্মদ আবেদ শাহ্ মোজাদ্দেদী রা. সম্পর্কে তিনি বলেন, বাংলাদেশে হাজার হাজার অমুসলিমকে তিনি মুসলমান বানিয়েছেন। লাখো ঈমানহারা মুসলমানকে আকাইদের সঠিক জ্ঞান দিয়েছেন। তাই বাংলাদেশের মানুষ এখনও গোমরাহী থেকে বেঁচে আহলে সুন্নাত ওয়াল জামা’আতের ছায়াতলে আসার সুযোগ পাচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, আহলে সুন্নাতের কথা বলে কিছু ভন্ড শরীয়তের বিধি-বিধান মানছে না। তাদের থেকেও এই ফেৎনার যুগে আমাদেরকে শিা নিতে হবে।

গত শনিবার হাজীগঞ্জ উপজেলার বিশ্ববিখ্যাত দ্বীনী পাঠশালা ইমামে রাব্বানী দরবার শরীফে প্রতি বছরের মতো এবারো অনুষ্ঠিত হয়েছে পবিত্র ওরছে নববী দ. ও সুন্নী মহা সমাবেশ।

উপস্থিত ছিলেন ইমামে রাব্বানী দরবার শরীফের বড় সাহেবজাদা মাও. সৈয়দ আলমগীর শাহ্ মোজাদ্দেদী, সেজো সাহেবজাদা মাও. সৈয়দ জাহের শাহ্ মোজাদ্দেদী, সৈয়দ নাছির শাহ্ মোজাদ্দেদী, ছোট সাহেবজাদা সৈয়দ মাহমুদ শাহ্ মোজাদ্দেদী, মেজো সাহেবজাদা মাও. সৈয়দ জাহান শাহ্ মোজাদ্দেদী রাহ.’র বড় সাহেবজাদা সৈয়দ মাখদুম শাহ্ মোজাদ্দেদী। প্রতি বছরের মতো এবারো লাধিক মানুষের সমাগম হয় পবিত্র ওরছে নববী দ. ও সুন্নী মহাসমাবেশের বিশাল ময়দানে।

দরবার শরীফ সূত্রে জানা গেছে, পবিত্র ওরছে নববী দ. ও সুন্নী মহাসমাবেশ উপলে শনিবার সকাল থেকে পবিত্র খতমে কোরআন, খতমে খাজেগান, খতমে গাউছিয়া, মাগরিবের নামাজের পর হযরত আবেদ শাহ্ মোজাদ্দেদী আল মাদানী রাহ. এর মাজারে গিলাফ জড়ানো এবং রাতব্যাপী নসীহতমূলক আলোচনা ও জিকিরের আয়োজন করা হয়েছে।

ইমামে রাব্বানী দরবার শরীফের ৫৮তম পবিত্র ওরছ ও সুন্নি মহাসমাবেশে চট্রগ্রাম বিশ^ বিদ্যারয়ের ইতিহাস বিভাগের প্রধান ড. এস এম বোরহানউদ্দিন, বিশিষ্ট লেখক ও গবেষক শহীদুল্যাহ্ বাহাদুর, অধ্যক্ষ জয়নাল আবেদীন জুবায়ের, অধ্যক্ষ হাছান রেজা, মুফতি আহলে সুন্নাহ আল্লামা আলাউদ্দিন জিহাদী, খলিফা ও আঞ্জুমানে হেলালীয়া দরবার শরীফের পীর আল্লামা মোশারফ হোসেন হেলালী, চান্দ্রা দরবার শরীফের পীর ড. এসএম হুজ্জাতুল্লাহ্ নক্সবন্দী, গাছতলা দরবার শরীফের পীর খাজা আরিফুল্যাহ’সহ শতাধিক ওলামা-মাশায়েখ পবিত্র ওরছে নববী দ. ও সুন্নী মহা সমাবেশে ত্বাকরীর পেশ করেন।

রোববার (৯ জানুয়ারি) ফজরের নামাজের আগে বিশ্ব শান্তি কামনায় ৫৮তম পবিত্র ওরছে নববী দ. ও সুন্নি মহাসমাবেশ-এ আখেরী তকরির পেশ, মিলাদ-কিয়াম ও দোয়া-মোনাজাত করেন ইমামে আহলে সুন্নাত, আওলাদে রাসূল আল্লামা সাইয়্যেদ বাহাদুর শাহ মোজাদ্দেদী আল আবেদী।

Sharing is caring!

[sharethis-inline-buttons]

আরও পড়ুন

  • সারা দেশ এর আরও খবর