চাঁদপুর সদর হাসপাতালের আইসোলেশনে ২৪ ঘন্টা ১১জনের মৃত্যু

চাঁদপুর ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট সরকারি জেনারেল হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডের আইসোলেশন  গত ২৪ ঘন্টায় মোট ১১জনের মৃত্যু হয়েছে।

 

বুধবার সকাল থেকে বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত এসব মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। এর মধ্যে ৪জনের করোনা পজেটিভ ও অন্যরা করোনার উপসর্গে ভুগছিলেন।

 

সদর হাসপাতালের করোনা বিষয়ক ফোকালপার্সন ডা. সুজাউদ্দৌলা রুবেল সংবাদকর্মীদের এ তথ্য জানান।

 

কচুয়া উপজেলার পোয়া এলাকার মনোয়ারাকে (৬০) বুধবার রাত ১০টা ২০ মিনিটে হাসপাতালে ভর্তির পর রাত ১২টা ২১ মিনিটে তিনি মারা যান। তিনি করোনার উপসর্গে ভুগছিলেন।

 

ফরিদগঞ্জ উপজেলার খাজুরিয়া এলাকার খলিলুর রহমানকে (৮৫) বুধবার রাত ১১টা ৫০ মিনিটে হাসপাতালে আনার পর রাত ১টা ৫০ মিনিটে তার মৃত্যু হয়। তিনি করোনার উপসর্গে ভুগছিলেন।

 

কচুয়া উপজেলার খাজুরিয়া এলাকার আমেন বেগমকে (৬৫) বুধবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে হাসপাতালে ভর্তির পর ভোর রাত সাড়ে ৪টার দিকে তিনি মারা যান। তিনি করোনার উপসর্গে ভুগছিলেন।

 

লক্ষ্মীপুর জেলার রামগঞ্জ উপজেলার জয়পুরা এলাকার মনিকে (৫৫) বুধবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে চাঁদপুর সদর হাসপাতালের ভর্তির পর রাতে তার অবস্থার চরম অবনতি হয়। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে তিনি মারা যান। তিনি করোনার উপসর্গে ভুগছিলেন।

 

ফরিদগঞ্জ উপজেলার মানুরি এলাকার আমির হোসেনকে (৭৫) গত ২৫ জুলাই সন্ধ্যায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বৃহস্পতিবার ভোর ৫টা ৫০ মিনিটের দিকে তিনি মারা যান। তিনি করোনায় আক্রান্ত ছিলেন।

 

ফরিদগঞ্জ উপজেলার পূর্ব গাজীপুর এলাকার ইউসুফ পাঠানকে (৭০) বুধবার রাত ১০টার দিকে চাঁদপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি হন। বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা ৪০ মিনিটে তিনি মারা যান। তিনি করোনার উপসর্গে ভুগছিলেন।

 

চাঁদপুর শহরের পুরানবাজারের পূর্ব শ্রীরামদী এলাকার সামছুন্নাহারকে (৭৫) মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টায় হাসপাতালে ভর্তির পর বুধবার রাত ১০টার দিকে তিনি মারা যান। তিনি করোনায় আক্রান্ত ছিলেন।

 

কচুয়া উপজেলার কড়িয়া এলাকার মনোয়ারাকে (৬০) বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে মারা যান। একই দিন দুপুর আড়াইটার দিকে তিনি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। তার নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট অপেক্ষমান।

 

মতলব দক্ষিণ উপজেলার মুন্সিরহাট এলাকার হাসাদী গ্রামের আবুল বাশারকে (৫৫) বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে চাঁদপুর সদর হাসপাতালে মারা যান। একই দিন বিকেল ৩টা ৫০ মিনিটে তিনি হাসপাতালে ভর্তি হন। তিনি করোনার উপসর্গে ভুগছিলেন।

 

চাঁদপুর সদর উপজেলার বাবুরহাট এলাকার মির্জাপুর গ্রামের মোঃ শাহজাহান খান (৬৫) গত ২৫ জুলাই সকাল সাড়ে ৮টায় সদর হাসপাতালে ভর্তি হন। বুধবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে তিনি মারা যান। তিনি করোনায় আক্রান্ত ছিলেন।

 

মতলব দক্ষিণ উপজেলার নারায়ণপুর এলাকার ইসহাক সরকারকে (৪৮) বুধবার সকাল ১১টার দিকে সদর হাসপাতালের করোনা আইসোলেশন ওয়ার্ডে মারা যান। তিনি মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ভর্তি হয়েছিলেন। তিনি করোনায় আক্রান্ত ছিলেন।

Sharing is caring!