বিশ্বের সবচেয়ে বড় প্রযুক্তি কোম্পানি গুগলকে কপিরাইট বা মেধা-স্বত্ব আইন লঙ্ঘনের দায়ে ফ্রান্সের কর্তৃপক্ষ ৬০ কোটি ডলার জরিমানা করেছে।

ফ্রান্সের বাজার প্রতিযোগিতা নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ বলছে, গুগল তাদের নিউজ সাইটগুলোতে শেয়ার করা খবরের বিনিময়ে ফরাসী সংবাদ প্রতিষ্ঠানগুলোকে অর্থ দেয়ার ব্যাপারে আলোচনায় সততার প্রমাণ দেয়নি।

বিশ্বে বড় বড় প্রযুক্তি কোম্পানিগুলোর সঙ্গে সংবাদ প্রতিষ্ঠানগুলোর কপিরাইট নিয়ে দ্বন্দ্ব চলছে বহুদিন ধরে, সংবাদ প্রতিষ্ঠানগুলো গুগলের কাছ থেকে বিজ্ঞাপনী আয়ের একটি অংশ দাবি করছিল।

বিবিসি সংবাদদাতারা জানাচ্ছেন, ফ্রান্সের প্রায় ৩০০ সংবাদ প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে বিজ্ঞাপনী আয় ভাগাভাগির জন্য গুগলের আলোচনা চলছিল অনেক দিন ধরে।

গুগল বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমের যেসব খবরের সারাংশ তাদের সার্চের ফলাফলে দেখায়, সেটির জন্য এসব প্রতিষ্ঠানকে তারা অর্থ দেবে, এটাই ছিল পরিকল্পনা। এটি ছিল ইউরোপে এধরনের প্রথম কোন উদ্যোগ।

ইউরোপীয় ইউনিয়ন তাদের কপিরাইট আইন আরও কড়াকড়ি করার পর গুগল এ ধরনের পদক্ষেপ নিতে বাধ্য হয়।

কিন্তু বড় বড় ফরাসী সংবাদ প্রতিষ্ঠানগুলো অভিযোগ করছিল, এই আলোচনায় গুগল একটা অভিন্ন অবস্থানে পৌঁছাতে যথেষ্ট সততার পরিচয় দেয়নি।

গুগল বলেছিল, তারা ১২১টি ফরাসী সংবাদ প্রতিষ্ঠানকে তিন বছরে সাত কোটি ৬০ লাখ ডলার দেবে কপিরাইট নিয়ে বিরোধ মেটাতে।।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের এক রুলিংয়ে বলা হয়েছিল, যখন কোন সংবাদ প্রতিষ্ঠান গুগলের সঙ্গে এ নিয়ে আলোচনা করতে চাইবে, তার তিন মাসের মধ্যেই সেই আলোচনা শেষ করতে হবে।

কিন্তু ফ্রান্সের কর্তৃপক্ষ বলছে, গুগল এই নিয়ম ভঙ্গ করেছে। আর বার্তা সংস্থা এএফপির মতো কিছু কিছু প্রতিষ্ঠান গুগলের কাছ থেকে আরও বেশি পরিমাণে অর্থ দাবি করছিল।

ফরাসী কর্তৃপক্ষ এই সমস্যার সমাধানে গুগলকে দু’মাস সময় বেঁধে দিয়েছে, নইলে প্রতিদিন ১০ লক্ষ ডলার করে জরিমানা গুনতে হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে।

গুগল বলেছে, ফরাসী কর্তৃপক্ষের এই সিদ্ধান্ত হতাশাজনক, তবে তারা এই রায় মেনে নেবে।

ফ্রান্সের কর্তৃপক্ষের সঙ্গে গুগলের এই বিরোধকে সংবাদ মাধ্যমগুলোর আর্থিক ভবিষ্যতের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে।

ভবিষ্যতে আরও অনেক দেশেই হয়তবা গুগলকে সংবাদমাধ্যমগুলোর সঙ্গে এধরনের সমঝোতায় আসতে হতে পারে।

Sharing is caring!