কচুয়া প্রতিনিধি:

কচুয়ায় ভাবির সাথে পরকীয়ায় জড়িয়ে দেবর লিটন (২৫) এখন শ্রীঘরে। লিটন কচুয়া উপজেলার করইশ গ্রামের আব্দুল জলিলের পুত্র। সে তার বড় ভাই নূরু মিয়ার স্ত্রী’র (১ সন্তানের জননী) সাথে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ে। লিটন প্রতিশ্রুতি দেয় ভাবিকে বিয়ে করার। লিটনের সাথে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ায় নূরু মিয়ার সাথে ওই ভাবির চরম বিরোধ সৃষ্টি হয়।

ভাবি দেবর লিটনকে স্বামী রূপে গ্রহণ করে আশায় বুক বাধে। কিন্তু বিধি বাম! লিটন সম্প্রতি অন্য এক মেয়ের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়ে এখন আর ভাবির খোঁজ খবর নিচ্ছে না। ভাবিও দেবরকে স্বামী রূপে পাওয়ার প্রানান্ত চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়। এ অবস্থায় ভাবি দেবর লিটনের বিরুদ্ধে রবিবার কচুয়া থানায় ধর্ষণের অভিযোগে মামলা দায়ের করে। মামলা নং- ৪। মামলা দায়েরের কয়েক ঘন্টার মধ্যেই পুলিশ বিশেষ অভিযান চালিয়ে ( রবিবার দুপুরে ) লিটনকে গ্রেফতার করে।

কচুয়া থানার ওসি মো: মহিউদ্দিন জানান- লিটনকে গ্রেফতারের পর কোর্টে সোপর্দ করার মধ্য দিয়ে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে।

Sharing is caring!