ফরিদগঞ্জ উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা ও উপজেলা প্রকৌশলীর পদটি দীর্ঘদিন ধরে শূণ্য রয়েছে। অতিরিক্ত দায়িত্ব ভারে গুরুত্বপূর্ণ এ দু’টি দপ্তরটি যেন অচল হয়ে পড়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, গতবছরের ৮ নভেম্বর উপজেলা প্রকৌশলী ড. মো. জিয়াউল ইসলাম মজুমদার বদলি হন। অপরদিকে একই বছরের ২৯ নভেম্বর উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. শওকত আলী বদলি হন। বদলি হওয়ার প্রায় ৫ মাস হয়ে গেলেও উক্ত পদদ্বয়ে কোনো কর্মকর্তা যোগদান করেননি বা করানো হয়নি। উপজেলা প্রকৌশলীর অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করছেন চাঁদপুর সদরের প্রকৌশলী মো. রাশেদুর রহমান। উপজেলা সহকারী সহকারী মৎস্য কর্মকর্তা মো. বেলায়েত হোসেন জানান অতিরিক্ত উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্বে আছেন সুদীপ ভট্টাচার্য।

সাধারণ ঠিকাদাররা জানান, ‘উপজেলা প্রকৌশলীর পদটি দীর্ঘদিন ধরে শূণ্য থাকায় সরকারের টেন্ডার এবং ঠিকাদারদের কাজ দীর গতিতে চলছে। বকেয়া বিল এবং চলমান বিল উত্তোলনে বিলম্ব হচ্ছে। যিনি অতিরিক্ত দায়িত্বে আছেন তিনি সপ্তাহে মাত্র ২/৩ দিন অফিস করেন। এতো বড় উপজেলার কাজ ২/৩দিনে করা সম্ভব নয়।’

এ ব্যাপারে জেলা নির্বাহী প্রকৌশলী বলেছেন, ‘প্রকৌশলীর সংকট রয়েছে। বিষয়টি আমি উধ্বর্তন কর্মকর্তাদের বলেছি। তারা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবেন।’

Sharing is caring!