বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল কেন্দ্রীয় কমিটি কর্তৃক সম্প্রতি অনুমোদিত হাজীগঞ্জ উপজেলা ও পৌর ছাত্রদলের অগঠনতান্ত্রিক কমিটি বাতিলের দাবীতে হাজীগঞ্জ উপজেলা ও পৌর ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দ বিক্ষোভ মিছিল করেছে।

বিক্ষোভকারীদের অভিযোগিত হাজীগঞ্জ উপজেলা ও পৌর ছাত্রদলের ঘোষিত কমিটিতে ছাত্রলীগের কর্মী, বিবাহিত, চাকুরীজীবী, প্রবাস ফেরত, অছাত্র, ব্যবসায়ী রয়েছে এসব কারণে ঘোষিত কমিটি বাতিলের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।
তারা আরো জানান, এমন কিছু লোককে ছাত্রদলের কমিটিতে রাখা হয়েছে। যারা আন্দোলন সংগ্রামে কখানো রাজপথে ছিলনা।

ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দ ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ত্যাগীদের বাদ দিয়ে ব্যবসায়ী ও অছাত্রদের কমিটি গঠন করা হয়েছে। রাজপথের আন্দোলন সংগ্রাম করা নেতৃবৃন্দদের কমিটিতে রাখা হয়নি।

শনিবার বিকেলে হাজীগঞ্জ উপজেলা ও পৌর ছাত্রদলের ব্যানারে বিক্ষোভ মিছিলটি হাজীগঞ্জ পূর্ব বাজার প্রদক্ষিণ করে। মিছিলে ‘অবৈধ পকেট কমিটি মানি না মানবো না বলে’ শ্লোগান দেয় ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দ। এ সময় ঘোষিত কমিটি বাতিলের দাবি জানায় তারা।

উল্লেখ্য, গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সংসদ থেকে ২১ সদস্য বিশিষ্ট হাজীগঞ্জ উপজেলা ছাত্রদল ও ২১ সদস্য বিশিষ্ট হাজীগঞ্জ পৌরসভা ছাত্রদলের আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করা হয়। আগামি ৬০ দিবসের মধ্যে স্ব-স্ব ইউনিটের পূর্ণাঙ্গ কমিটি করার নির্দেশনা দেয়া হয়।

উপজেলা ও পৌর ছাত্রদলের এই নেতৃবৃন্দ আরো দাবি করেন, সমন্বয় না করে এক নেতার ভক্তদেরকে দিয়ে এ কমিটি করা হয়েছে। এমনকি ছাত্রদলের সাংগঠনিক নিয়ম না মেনে এতে ছাত্রলীগ, বিবাহিত বহুজনকে স্থান দেয়া হয়েছে। মিছিলে ছাত্রদল নেতা মোঃ ফরহাদ মামুন, মোঃ কবির মিয়াজি, মোঃ মোরশেদ, আবির, এস.কে মেহেদি হাসান, মোঃ ইব্রাহিম মুন্সি, মোঃ শাহেদ মুন্সি, তোফায়েল হোসেন রবিন, মাইনুউদ্দিনসহ ছাত্রদলের নেতা-কর্মী ও সমর্থকরা অংশ নেয়।

Sharing is caring!