চাঁদপুর মডেল থানার পুলিশ বিশেষ কিশোর গ্যাং অপরাধ প্রতিরোধ ও মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে ৪৭ জন কিশোর গ্যাং সদস্যকে আটক করতে সক্ষম হয়েছে।

মঙ্গলবার বিকেল থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত চাঁদপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ আব্দুর রশিদ এর নেতৃত্বে মডেল থানা পুলিশ কয়েকটি দলে বিভক্ত হয়ে এ অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় কিশোর গ্যাং এর ৪৭ জন সদস্যকে আটক করে সদর মডেল থানায় নিয়ে আসে।

অভিযান চলাকালীন সময়ে চাঁদপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ আব্দুর রশিদের নেতৃত্বে পুলিশ অফিসাররা শহরের চাঁদপুর প্রেসক্লাব সংলগ্ন ঘাট থেকে অভিযান শুরু করে ৫নং কয়লা ঘাট, স্ট্যান্ড রোড, বেদে পল্লী, ছায়াবানী রোড, নতুন আলিম পাড়া, প্রতাপসাহা রোড, মিশনরোড বালুর মাঠ, ট্রাকরোড এলাকায় অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় চাঁদপুর মডেল থানার ওসি ইন্টিলিজেন্স মনির আহম্মেদসহ পুলিশের বিভিন্ন পর্যায়ের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

এ বিষয়ে চাঁদপুর সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মুহাম্মদ আব্দুর রশিদ জানান, সন্ধ্যার পর বিভিন্ন পাড়া-মহল্লার রাস্তায় কোনো শিক্ষার্থী পেলেই আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে। আমাদের এ চলমান অভিযান অব্যাহত থাকবে। আমি নতুন অফিসার ইনচার্জ হিসেবে আশা করি চাঁদপুরবাসীকে কিশোর গ্যাং মুক্ত একটি শহর উপহার দিতে চাই।

তিনি আরও বলেন, আমরা মিডিয়ার মাধ্যমে অভিভাবকদের জানাতে চাই,আপনার সন্তানের উপর নজর রাখুন। কোন অবস্থাতেই তারা যেন অকারনে সন্ধ্যার পর বাহিরে বের না হয়।

মাদক ও কিশোর গ্যাং বিষয়ে কোনো ধরনের অপরাধ সংগঠিত হওয়ার লক্ষন দেখা মাত্রই চাঁদপুর সদর মডেল থানা পুলিশ কে জানানোর অনুুুরোধ জানান। আটককৃতদের যাচাই বাছাইয়ের পর অভিবাবকদের থানায় ঢেকে এনে সর্তক করে দেয়া হবে।

Sharing is caring!