হাজীগঞ্জের বাকিলা ইউনিয়নে জমির টাকার জন্য চাঁদাদাবি করে একটি পরিবারের উপর হামলা চালিয়েছে সন্ত্রাসী বাহিনী। শুক্রবার দুপুরে ইউনিয়নের উচঙ্গা পালবাড়িতে চাঁদা না পেয়ে হামলার শিকার হয় অসহায় পরিবারটি। এতে আহত হয়েছে একই পরিবারের ৩ জন।

আহতরা হলেন, উচঙ্গা পালবাড়ির মৃত লাল মহনের স্ত্রী পুস্প রানী (৬০), তার ছেলে শংকর পাল (৩৪) ও উত্তম পাল (২৩)। আহতরা বর্তমানে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছে।

আহত শংকর পাল জানান, আমরা ইউনিয়নের উচঙ্গা পালবাড়িতে ২৩ শতাংশ জমি ৩৮ লক্ষ টাকা দিয়ে ক্রয় করেছি। জমি কিনার পর থেকে হারুন পাল ২ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করে আসছে। এ নিয়ে চাঁদাবাজ ও সন্ত্রাসী সামসুজ্জামানের নেতৃত্বে হারুন পাল, জয়কৃষ্ণ, ডা. বিমল কৃষ্ণচন্দ্র পাল, রনজিত দেবনাথ, জাকির হোসেন শাহীন, বায়জিত মজুমদার সহ আরো বেশ কয়েকজন আমাদের বাড়ি গিয়ে হুমকি-ধমকি শুরু করে। বাড়িতে আমার মা-বোনকে একা পেয়ে গালমন্দ শুরু করে। একপর্যায় তারা আমার মা ও বোনকে পাইব দিয়ে মারতে শুরু করে। ঘটনাক্রমে আমরা উপস্থিত হলে আমাদেরকেও পাইব দিয়ে মারা শুরু করে।

তিনি জানান, পাইবের বারিতে আমার মায়ের পায়ে বড় ধরনের জখম হয়। এছাড়া আমাদের শরীরে আঘাতের চিহৃ তৈরি হয়। তারা ঘটনাস্থলে হামলা করে আমার মায়ের সোনার চেন নিয়ে যায়। আমরা এখন পুরোপুরি নিরাপত্তার অভাবে রয়েছি। তারা এখনো আমাদের উপর হামলার পরিকল্পনা করছে। এ ঘটনায় আমরা হাজীগঞ্জ থানায় মামলা করার প্রস্তৃতি নিয়েছি।

Sharing is caring!