চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে ছাত্রদলের মিছিল থেকে পুলিশের উপর হামলার ঘটনায় বিএনপির দেড়শতাধিক নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। এর মধ্যে ১০৯জন নামীয় ও আরো ৬০/৭০জনকে অজ্ঞাত আসামী করা হয়েছে।

এ ঘটনায় পুলিশ সদ্য ঘোষিত উপজেলা যুবদলের আহবায়ক কমিটির যুগ্ম আহবায়ক ও উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সদস্য সচিব মো. জিসান আহমেদ সিদ্দিকিসহ ২জনকে আটক করেছে।

বিএনপি সূত্রে জানাযায়, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের সাংগঠনিক অভিভাবক তারেক রহমানের বিরুদ্ধে নোয়াখালি দায়রা জজ আদালত থেকে গ্রেফতারি পরোয়ানাজারি করার প্রতিবাদে হাজীগঞ্জ বাজারে উপজেলা ও পৌর ছাত্রদল এবং যুবদল বিক্ষোভ মিছিল মঙ্গলবার বিকেলে হাজীগঞ্জ বাজারে বিক্ষোভ মিছিল বের করে। বিক্ষোভ মিছিলের অনুমতি না থাকায় পুলিশ মিছিলে বাঁধা দেয়। মিছিল থেকে পুলিশের উপর অতর্কিত হামলা করলে পুলিশের এক এসআইসহ ২জন গুরুতর আহত হয়। ওই ঘটনায় পুলিশ এ মামলা দায়ের করেছে। মামলায় হাজীগঞ্জ মডেল সরকারি কলেজের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ, উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি শিক্ষাবিদ ড. মো. আলমগীর কবির পাটওয়ারী, পৌর বিএনপির সভাপতি নাজমুল আলম চৌধুরী, পৌর বিএনপির সাবেক যুগ্ম আহবায়ক হেলালউদ্দিন মজুমদারসহ প্রথম সারির বিএনপি, যুবদল ও ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দকে আসামী করা হয়েছে।

মঙ্গলবার বিকেল পৌনে ৫ টার দিকে চাঁদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) স্নিগ্ধা সরকার ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের বলেন, পুলিশের উপর হামলার ঘটনা কোন ভাবেই ছাড় দেয়া হবেনা। দোষীদের সাজা পেতেই হবে।

হাজীগঞ্জ থানা সূত্রে জানাযায়, এ ঘটনায় মঙ্গলবার রাতেই বিএনপি, যুবদল ও ছাত্রদলের ১০৯জনের নাম উল্লেখ পূর্বক আরো ৬০/৭০জন অজ্ঞাত নাম দিয়ে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

হাজীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আলমগীর হোসেন রনি, মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

Sharing is caring!