সকল জলপনা কল্পনার অবশান ঘটিয়ে অবশেষে ঘোষিত হয়েছে চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনের তফসিল। নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য প্রর্থীরা মনোনয়ন নিশ্চিত করতে ঢাকায় ব্যস্ত সময় পার করছেন। শুধুমাত্র নৌকা প্রতীকের আশায় সম্ভাব্য প্রার্থীদের রাত দিন একাকার হয়ে গেছে। এখন আর সভা-সমাবেশ কিংবা আগাম প্রচারণায় দেখা মিলছেনা তাদের।

সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, কেন্দ্রীয় ও বিভাগীয় দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতাদের বাসা, রাজনৈতিক ও ব্যক্তিগত কার্যালয়ে সাক্ষাৎ করে প্রার্থীরা নিজের অবস্থান তুলে ধরতে ব্যস্ত সময় পার করছেন।
দলীয় সূত্র জানায়, পৌরসভার সম্ভাব্য ২ ডজন প্রার্থীর মধ্যে সিংহভাগই ঢাকায় অবস্থান করছেন। অন্যরা এলাকায় আসা-যাওয়ার মধ্যে নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন।

দলীয় নেতাকর্মীরা জানায়, দৃশ্যমানভাবে ফরিদগঞ্জে আওয়ামী লীগের তিন নেতার মধ্যে বিভক্তি সুস্পষ্ট। যার ফলে তাদের অনুসারী স্থানীয় নেতাকর্মীরাও বিভক্ত। এর পরিপ্রেক্ষিতে পৌর নির্বাচনকে কেন্দ্র করে প্রত্যেক নেতার অনুসারীদের মধ্য থেকে মেয়র পদে নৌকা প্রতীকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী প্রার্থীর ছড়াছড়ি লক্ষ্য করা যাচ্ছে। এ মুহুর্তে ভোটারদের চাইতে নৌকা প্রতীক প্রাপ্তিই প্রার্থীদের কাছে মুখ্য বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে বলে মনে করেন পৌর নাগরিকরা।

পৌর নির্বাচনে ফরদিগঞ্জ পৌরসভায় মেয়ের পদে বাংলাদশে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ২০ জন প্রার্থী। তারা হলনে- পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান মেয়র মো. মাহফুজুল হক, উপজলো আওয়ামীলীগের সভাপতি যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল খায়ের পাটোওয়ারী, সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগরে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ওয়াহিদুর রহমান রানা, বঙ্গবন্ধু গবেষণা পরিষদ চাঁদপুর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ও ফরিদগঞ্জ পৌর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি কামরুল হাসান সাউদ, উপজলো আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি লোকমান তালুকদার, পৌর আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি কামাল হোসেন মিয়াজী, চাদঁপুর জেলা পরিষদ সদস্য ও পৌর আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুল ইসলাম রিপন, উপজেলা যুবলীগ আহবায়ক আবু সুফিয়ান শাহিন, ফরিদগঞ্জ পৌর ছাত্রলীগেরে সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম-আহবায়ক আকবর হোসনে মনির, সাবেক যুবলীগ নেতা মাহবুব মোর্শেদ, উপজেলা যুবলীগের সিনিয়র যুগ্ন আহবায়ক হেলাল উদ্দিন, ফরিদগঞ্জ পৌরসভার প্যানেল মেয়র মো. খলিলুর রহমান, পৌর আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও বর্তমান কাউন্সিলর মজিবুর রহমান, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসনে পাটোওয়ারী, যুবলীগ নেতা আব্দুল গাফফার সজীব, যুবলীগ নেতা মাকসুদুল বাশার বাঁধন পাটোওয়ারী, মুক্তিযুদ্ধরে অন্যতম সংগঠক মরহুম আমিনুল হক মাষ্টারের পুত্র মো. এনামুল হক রাসেল, যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নেতা ইকবাল হোসেন এবং সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থীর তালিকায় এই প্রথম দু’জন নারী প্রাার্থী রয়েছেন। তারা হলেন- ফরদিগঞ্জ উপজেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও পৌর মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আজমুর বেগম। ছাত্রলীগের সাবেক নেত্রী সেলিনা আক্তার শেলী।

বাংলাদেশে জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী ৬ জন। তারা হলনে পৌর বিএনপির সভাপতি আমানত গাজী, বিগত নির্বাচনে বিএনপরি মনোনীত মেয়র প্রার্থী ও সাবেক উপজলে বিএনপির সহ-সভাপতি হারুনুর রশদি, উপজেলা বিএনপির সাংগঠনকি সম্পাদক আব্দুল খালেক পাটোওয়ারী, ফরদিগঞ্জ উপজলো যুবদলের সদস্য সচিব আব্দুল মতিন, ফরদিগঞ্জ পৌর যুবদলের আহ্বায়ক মো. ইমাম হোসেন, পৌর যুবদলের যুগ্ম-আহব্বায়ক নাজিম হোসেন ভূঁইয়া। পৌর বিএনপির নেতা এম এ টুটুল পাটোওয়ারী।

উপজেলা আওয়ামীলীগের একনেতা বলেন,‘আমরা ভোটারের মতামতের ভিত্তিতে দলীয় মেয়র প্রার্থীদের নামের তালিকা করে ইতোমধ্যে কেন্দ্রে জমা দিয়েছি। দলের বিরুদ্ধে যারা অবস্থান নিয়ে ভোট করেছে, তাদের নাম না দেয়ার জন্য কেন্দ্র থেকে কঠোর নির্দেশনা ছিল। প্রার্থীরা এখন ঢাকায় তদবির করছেন মনোনয়ন পেতে’।

Sharing is caring!