শাহরাস্তি পৌরসভার সাবেক সফল মেয়র ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোঃ মোশারফ হোসেন (মুশু) পাটোয়ারী হযরত শাহরাস্তির (রঃ) মাজার শরীফ জিয়ারত ও শাহরাস্তি হাজীগঞ্জের গণমানুষের নেতা মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীরউত্তম এমপি’র সুস্বাস্থ্য কামনায় মিলাদ মাহফিলের মাধ্যমে আগামী পৌরসভা নির্বাচনে নিজের প্রার্থীতার ঘোষণা দিয়েছেন।

শুক্রবার (৪ সেপ্টেম্বর) পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডস্থ বাদিয়া জামে মসজিদ হতে তিনি এ ঘোষণা দেন।

জানা যায়, ওইদিন সকাল সাড়ে ১০ টায় সাবেক পৌর মেয়র তার নিজ বাড়ির মসজিদে দোয়া ও পিতা হাজী আঃ রহমান পাটোয়ারী, মাতা সুফিয়া বেগম এবং বড়ভাই আঃ হাই পাটোয়ারীর  কবর জিয়ারত করেন। এরপর বয়োবৃদ্ধ আওয়ামীলীগ নেতা, সাবেক রিলিফ চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহাবুদ্দিন পাটোয়ারীর বাসায় তার সাথে সৌজন্য সাক্ষাত করেন। বেলা ১১টায় সীমিত পরিসরে হযরত শাহরাস্তির (রঃ) মাজার জিয়ারতের উদ্দেশ্যে বের হলেও খবর পেয়ে পৌরসভার বিভিন্ন ওয়ার্ডের আপামর জনতার উপস্থিতিতে মাজার এলাকা কানায় কানায় ভরে উঠে। দুপুরে ২নং ওয়ার্ডের বাদিয়া জামে মসজিদে জুমার নামাজের পর মহান মুক্তিযুদ্ধের ১নং সেক্টর কমান্ডার, সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীরউত্তম এমপি’র সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করে দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করেন।

এসময় আগত মুসুল্লীদের উদেশ্যে তিনি বলেন, আমি ২০০৪ সাল হতে ২০১১ সাল পর্যন্ত শাহরাস্তি পৌরসভার মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছি। আসন্ন নির্বাচনে আমি আওয়ামীলীগের হয়ে আপনাদের দোয়া প্রার্থী। আমার পিতৃতুল্য অভিভাবক মহান মুক্তিযুদ্ধের ১নং সেক্টর কমান্ডার, সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীরউত্তম এমপি এই এলাকার জনগনের ভাগ্য উন্নয়নে দিনরাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। তাঁর সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনায় আপনারা সকলে দোয়া করবেন। ইতোমধ্যে পৌর নির্বাচনে অনেকেই প্রার্থীতার বিষয়ে এমপি মহোদয়ের নাম ভাঙ্গিয়ে নিজেদের প্রচারণা করছেন। অথচ আমাদের অভিভাবক এখন পর্যন্ত কারো ব্যপারে এমন ঘোষণা দেননি। তিনি রাজনৈতিক বিষয়ে অনেক প্রজ্ঞার অধিকারি। দল ও পৌরবাসীর আশা আকাঙ্ক্ষার দিকে লক্ষ্য রেখেই তিনি এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত দিবেন। এ নিয়ে কোন আত্মতুষ্টি বা ব্যক্তিগত প্রচারণার সুযোগ নেই। আপনাদের ভালোবাসাই আমার আগামীর পাথেয়। আমার জন্য দোয়া করবেন যাতে আমি দলীয় সমর্থন নিয়ে আপনাদের পাশে থাকতে পারি।

Sharing is caring!