পক্ষাঘাতগ্রস্ত রোগী রোবট স্যুট পরে হাঁটলেন

অনলাইন ডেস্ক

মস্তিষ্ক দিয়ে নিয়ন্ত্রণ করা যায় এমন একটি ‘রোবটিক স্যুট’ পরে পক্ষাঘাতগ্রস্ত (প্যারালাইজড) এক ব্যক্তি তার অবশ হাত-পা নাড়াতে সক্ষম হয়েছেন। ফরাসি গবেষকরা শুক্রবার এ তথ্য দিয়েছেন।

থিবল্ট নামে ৩০ বছর বয়সী পক্ষাঘাতগ্রস্ত এক ফরাসির ওপর পরীক্ষাটি চালানো হয়। তিনি মস্তিষ্কের সঙ্গে সংযুক্ত একটি ‘এক্সোস্কেলেটন স্যুট’ পরে কয়েক ধাপ হাঁটতে পেরেছেন। থিবল্ট এ হাঁটার অভিজ্ঞতাকে চাঁদের মাটিতে প্রথম মানুষের পা রাখার অভিজ্ঞতার সঙ্গে তুলনা করেছেন। খবর বিবিসির।
গবেষকরা বলছেন, থিবল্ট যেভাবে হেঁটেছেন সেটা যে একেবারে শতভাগ ঠিকঠাক ছিল, তা বলা যাবে না। তবে গবেষকরা আশাবাদী, এ পরীক্ষা ভবিষ্যতে পক্ষাঘাতে আক্রান্তদের জন্য বড় সুখবর নিয়ে আসতে পারে। থিবল্টের মাথায় অস্ত্রোপচার করে তার মস্তিষ্কের ওপর দুটি ইমপ্ল্যান্ট বসানো হয়। মস্তিষ্কের যে অংশটি মানুষের চলাফেরা নিয়ন্ত্রণ করে, সেখানে যুক্ত করা হয়েছিল ইমপ্ল্যান্ট। প্রতিটিতে ৬৪টি ইলেকট্রোডযুক্ত ইমপ্ল্যান্ট মস্তিষ্কের সঙ্কেত পাঠিয়ে দেয় নিকটবর্তী এক কম্পিউটারে। অত্যাধুনিক এক কম্পিউটার সফ্টওয়্যার দিয়ে এ সঙ্কেত পড়া হয়। এরপর সেই সঙ্কেত অনুযায়ী এক্সোস্কেলেটন স্যুটের কাছে নির্দেশ যায় কী করতে হবে। থিবল্টের শরীর বাঁধা ছিল ৬৫ কেজি ওজনের এ স্যুটে। থিবল্ট যখনই ভাবছেন তিনি হাঁটবেন, মস্তিষ্ক থেকে সঙ্কেত যাচ্ছে কম্পিউটারে, কম্পিউটার থেকে আসা নির্দেশে এরপর এক্সোস্কেলেটন স্যুট তাকে হাঁটাচ্ছে।

এক দুর্ঘটনায় স্পাইনাল কর্ড ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার পর দু’বছর অবশ শরীর নিয়ে হাসপাতালে কাটান থিবল্ট। অত্যাধুনিক রোবটিক স্যুটটি পক্ষাঘাতগ্রস্ত ব্যক্তির সব ধরনের চলাফেরায় যে সাহায্য করতে পারে তা নয়। তবে আগের গবেষণার চেয়ে এবারের সাফল্যকে বিরাট অগ্রগতিই বলতে হবে।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

shares