অনলাইন ডেস্ক :

ট্রেনের শিডিউল বিপর্যয় ঠেকাতে পারছে না বাংলাদেশ রেলওয়ে। ঈদযাত্রার শুরুর দিন থেকেই বেশ কয়েকটি ট্রেন শিডিউল বিপর্যয়ে পড়ে। ঝড়বৃষ্টিসহ নানা করণে নির্ধারিত গন্তব্য থেকে ট্রেনগুলো কমলাপুর স্টেশনে ফিরে আসতে দেরি করে। ফলে কমলাপুর থেকেও বিভিন্ন গন্তব্যে ট্রেন ছাড়তে দেরি হচ্ছে। খুব দ্রুতই শিডিউল বিপর্যয় কাটিয়ে ওঠা যাবে বলে আশা করছে কর্তৃপক্ষ। তবে এ নিয়ে সংশয়ে রয়েছেন যাত্রীরা।

রবিবার (২ জুন) কমলাপুরে গিয়ে দেখা গেছে, যে ট্রেনটি স্টেশন থেকে সকাল ৬টায় রাজশাহীর উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়ার কথা, সেটি সকাল ৯টার পরেও স্টেশনের ২ নম্বর প্লাটফর্মে দাঁড়িয়ে ছিল। পরে প্রায় সাড়ে ৩ ঘণ্টা দেরিতে সকাল সাড়ে ৯টায় ট্রেনটি রাজশাহীর উদ্দেশে ছেড়ে যায়।

অন্যদিকে, চীলাহাটিগামী নীলসাগর এক্সপ্রেস ট্রেনটি সকাল ৮টায় কমলাপুর ছেড়ে যাওয়ার কথা থাকলেও ১১টা ৫০ মিনিটে স্টেশন ত্যাগ করে। এছাড়া, খুলনাগামী সুন্দরবন এক্সপ্রেস সকাল ৬টা ২০ মিনিটে ছাড়ার কথা থাকলেও তা ছেড়েছে সকাল ৮টায়।

কমলাপুর স্টেশনের ম্যানেজার আমিনুল হক বলেন, ‘যে ট্রেনগুলো দেরিতে এসে কমলাপুরে পৌঁছেছে, সেগুলো ছাড়তে কিছুটা বিলম্ব হয়েছে। তবে বেশিরভাগ ট্রেনই যথাসময়ে ছেড়ে গেছে। আমরা চেষ্টা করছি, সব ট্রেন যেন যথাসময়ে ছেড়ে যেতে পারে। সব মিলিয়ে যাত্রীদের ভোগান্তি নিরসনে সার্বিক সহযোগিতার চেষ্টা করছি আমরা।’

Sharing is caring!